Widget by:Baiozid khan
  • Advertisement

বিজেপির ইশতেহারে অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণের প্রতিশ্রুতি

Published:2014-04-07 18:17:59    

বাংলাসংবাদ, ওপার বাংলা ডেস্ক: সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে লোকসভা ভোট শুরুর দিনই নির্বাচনী ইশতেহার প্রকাশ করল ভারতের হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপি।

আজ (সোমবার) নয়াদিল্লিতে রাজ্যসভার বিরোধীদলীয় নেতা অরুণ জেটলির বাড়িতে এক সংবাদ সম্মেলনে ইশতেহারটি প্রকাশিত হয়। এ সময়  উপস্থিত ছিলেন বিজেপির সভাপতি রাজনাথ সিং, প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী নরেন্দ্র মোদী, বর্ষীয়ান নেতা এল কে আদভানী, লোকসভার  বিরোধী দলনেত্রী সুষমা স্বরাজ প্রমুখ। ৫২ পৃষ্ঠার ইশতেহারের মূল শ্লোগান ‘এক ভারত, শ্রেষ্ঠ ভারত’ এবং সবার সঙ্গে, সবার বিকাশ।

ইশতেহারে অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণের প্রতিশ্রুতি দেয়া হয়েছে। এমনকি, ৩৭০ ধারার অবসান ঘটিয়ে জম্মু-কাশ্মীরকে বিশেষ মর্যাদার আওতায় আনার পাশাপাশি কাশ্মীরি পণ্ডিতদের যথাযোগ্য সম্মানের সঙ্গে তাদের বাসভূমিতে ফেরত পাঠানোর কথা ইশতেহারে উল্লেখ করা হয়েছে। বিজেপি হিন্দুত্ববাদের পথ ধরে নির্বাচনী বৈতরণী পার হতে চাচ্ছে কিনা জানতে চাইলে ইশতেহার কমিটির চেয়ারম্যান মুরলী মনোহর যোশী জানান, হিন্দুত্ব কখনোই বিজেপি'র নির্বাচনী বিষয়ের মধ্যে ছিল না। এ বারের দলীয় ইশতেহার পুরোপুরি উন্নয়ন এবং শাসন পরিচালন পদ্ধতির উপর ভিত্তি করে তৈরি হয়েছে।

তিনি জানান, ইশতেহারে পাঁচটি ‘টি’-এর ওপর জোর দেওয়া হয়েছে। এগুলো হচ্ছে- ট্যালেন্ট, ট্যুরিজম, ট্রেড, ট্রাডিশন এবং টেকনোলজি। যোশী বলেন, “গত ১০ বছরে আমাদের দেশ পিছিয়ে গেছে।

ইশতেহারে সেই সব বিষয়ের উপরেই নজর দেয়া হয়েছে যা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।” শিক্ষা, কর্মসংস্থান, মহিলাদের স্বাধিকার এবং পরিকাঠামোর মতো বিষয়েও গুরুত্ব দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

ইশতেহার প্রকাশ অনুষ্ঠানে বিজেপির প্রধামন্ত্রী প্রার্থী ও গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, “এই ইশতেহার শুধু কাগজের নথি নয়; এটি আমাদের লক্ষ্য, আমাদের দিশা। আমরা তা পূরণ করব।”

দেশে সুশাসন এবং  বিকাশ-ই বিজেপির একমাত্র লক্ষ্যে দাবি করে তিনি বলেন,  “শোষিত, বঞ্চিত গরিব মানুষদের জন্য সরকারই ভরসা। তাদের কথা শোনা ও ভাবা সরকারের কর্তব্য-দায়িত্ব।“

গত সপ্তাহে ইশতেহার প্রকাশের কথা থাকলেও দলত্যাগী বিজেপি নেতা যশোবন্ত সিংয়ের তৈরি করা খসড়া পছন্দ না হওয়ায় বেঁকে বসেন নরেন্দ্র মোদী। শেষমুহূর্তে পরিবর্তন আনতে গিয়েই নির্ধারিত দিনে প্রকাশ করা যায়নি ইশতেহার। পরে সিদ্ধান্ত নেয়া হয় প্রথম দফার ভোট শুরুর দিন সোমবার ইশতেহার প্রকাশ করা হবে।

তবে, ভোট শুরুর দিন ইশতেহার প্রকাশ আদর্শ নির্বাচনী বিধি ভঙ্গ করবে বলে বিজেপিকে জানিয়ে দেয় নির্বাচন কমিশন। পরে অবশ্য লোকসভা ভোটের দিনই ইশতেহার প্রকাশের অনুমতি দেয় কমিশন। তবে, শর্ত দেয়া হয়, যে সব অঞ্চলে এদিন ভোট হবে, সেখানে বিজেপি’র ইশতেহার প্রচার করা যাবে না।

এছাড়া, ওইসব অঞ্চলে কমিশনের নির্দেশে সংবাদমাধ্যমে ইশতেহার প্রকাশ সংক্রান্ত খবর প্রকাশের ওপরও নিষেধাজ্ঞা জারি করে নির্বাচন কমিশন।

বাংলাসংবাদ২৪/ইএফ

আরও সংবাদ