Widget by:Baiozid khan
শিরোনাম:

ঢাকা Wed September 26 2018 ,

‘মুসলমানদের ফ্ল্যাট দেয়া হয় না’

Published:2015-05-27 23:30:09    
‘মুসলমানদের ফ্ল্যাট দেয়া হয় না’

A PHP Error was encountered

Severity: Warning

Message: file_get_contents(): https:// wrapper is disabled in the server configuration by allow_url_fopen=0

Filename: singlecontent/tcontent.php

Line Number: 32

A PHP Error was encountered

Severity: Warning

Message: file_get_contents(https://api.facebook.com/method/fql.query?format=json&query=SELECT+url%2C+normalized_url%2C+share_count%2C+like_count%2C+comment_count%2C+total_count%2C+commentsbox_count%2C+comments_fbid%2C+click_count+FROM+link_stat+WHERE+url+%3D+%27http%3A%2F%2Fbanglasongbad24.com%2Fcontent%2Ftnews%2F401%27): failed to open stream: no suitable wrapper could be found

Filename: singlecontent/tcontent.php

Line Number: 32

A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Trying to get property of non-object

Filename: singlecontent/tcontent.php

Line Number: 35

ভারতীয় মুসলমানদের দুরবস্থার নতুন চিত্র প্রকাশিত হলো আবর। একজনকে ফ্ল্যাটে ওঠতে দেয়া হয়নি, আর একজনকে চাকরিচ্যুৎ করা হয়েছে।
সংখ্যালঘু তথা মুসলমান হওয়ার অপরাধে বছর ২৫-এর তরুণীকে আবাসন থেকে বের করে দেয়ার হুমকি দেয়া হয়েছে। তাকে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হল ‘মুসলমানদের ফ্ল্যাট দেয়া হয় না’।
মিশবাহ কাদরি নামে ওই তরুণী জানিয়েছেন, তিনি ওয়াডালার ‘সাংভি হাইটস’ আবাসনে একটি তিন বেডরুমের ফ্ল্যাট পেয়েছিলেন। আরো দুই রুমমেটও পেয়েছিলেন। ফ্ল্যাটে থাকা শুরু করার কথা ছিল কিছুদিনের মধ্যেই। তার আগেই ফ্ল্যাটের ‘ব্রোকার’ এসে বললেন, ‘সংখ্যালঘুদের ওই আবাসনে থাকতে দেয়া হবে না।’ তার ধর্মের জন্য যদি তার প্রতিবেশীরা অসুবিধায় পড়েন তাহলে তার দায়িত্ব ব্রোকারের নয় বলে উল্লেখ করা হয়। এই শর্তে তাকে থাকতে দেয়া হবে বলে জানানো হয়। যদিও এই ঘটনা তার জন্য যথেষ্ট অপমানজনক ছিল, তবুও আগের ফ্ল্যাট ছেড়ে দেয়ায় তিনি বাধ্য হয়েই থাকতে যান।
এক সপ্তাহের মধ্যে ফের ব্রোকারের ফোন আসে। ঘর থেকে জিনিসপত্র বের করে ছুঁড়ে ফেলে দেয়া হবে বলে হুমকি দেয়া হয়। মিশবাহকে বলা হয়, প্রতিবেশীরা চাইছেন না যে, তিনি ওই আবাসনে থাকেন। যদিও সেকথা অস্বীকার করেছেন আবাসনের অন্য বাসিন্দারা। 
এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে রাজ্য সংখ্যালঘু কমিশনের দ্বারস্থ হয়েছেন মিশবাহ।
সপ্তাহ খানেক আগেই জেশান খান নামে এক যুবককে সংখ্যালঘু হওয়ার অপরাধে চাকরি থেকে বের করে দেওয়া হয়।
গত পাঁচ বছর ধরে মুম্বইতে রয়েছেন মিশবা। তার আগে গুজরাতে থাকতেন তিনি। মিশবা জানিয়েছেন, গুজরাতে ধর্মবিদ্বেষের ভয়ংকর চেহারা দেখেছেন তিনি। মুম্বইতেও একই ঘটনার শিকার হচ্ছেন।