Widget by:Baiozid khan
শিরোনাম:

ঢাকা Wed September 26 2018 ,

দৃষ্টিনন্দন গ্রীন সিটি হবে ময়মনসিংহ

Published:2013-08-03 12:29:36    


ময়মনসিংহ : ময়মনসিংহ শহর দৃষ্টিনন্দন ‘গ্রীন সিটি’তে পরিনত করার উদ্যোগ নিয়েছে ময়মনসিংহ পৌরসভা। এর মধ্যে ক্লিন ডেভেলপমেন্ট ম্যাকানিজম (সিডিএম) অন্যতম। এ কর্মসূচির লক্ষ্য হলো, ময়মনসিংহকে পরিবেশবান্ধব পরিচ্ছন্ন ও গ্রীন সিটিতে উন্নীত করা।

ব্রক্ষপুত্র নদের তীরে সবুজ গাছপালায় ঘেরা শিক্ষা নগরী হিসেবে পরিচিত শহরটিতে রয়েছে প্রায় ৩শ’ বছরের ঐতিহ্য। ময়মনসিংহ অঞ্চলের প্রাণকেন্দ্র এ শহরটির জনসংখ্যা প্রায় ৫ লাখ।

দৃষ্টিনন্দন ময়মনসিংহ শহরে আধুনিক জীবনযাত্রার পরিবেশ নিশ্চিত করতে ময়মনসিংহ পৌরসভা সম্প্রতি বেশ কিছু উদ্যোগ নিয়েছে।

সূত্র জানায়, ময়মনসিংহ পৌরসভার মেয়র ইকরামুল হক টিটু শহরটিকে পরিচ্ছন্ন, সুন্দর ও আধুনিক করার লক্ষ্যে ‘ভিশন ২০২৫’ গ্রহণ করেন। এ রূপকল্পের আওতায় ময়মনসিংহকে গ্রীন সিটিতে রূপায়িত করার কার্যকর পরিকল্পনা হাতে নেয়।

মেয়র বলেন, ময়মনসিংহ পৌরসভার আধুনিকায়নে মাস্টারপ্লান গ্রহণ করা হয়েছে। শহরবাসীর জীবন মান উন্নয়নে পরিচ্ছন্নতা ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনার ওপর গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। এ লক্ষ্যে প্রকল্প এগিয়ে চলছে। অচিরেই রাতে শহরের পরিচ্ছন্নতার কাজ সম্পন্ন হবে। ভোরে শহরবাসী এক পরিচ্ছন্ন সবুজ শহর দেখতে পাবেন।

সূত্র জানায়, দ্বিতীয় নগর পরিচালন ও অবকাঠামো উন্নীতকরণ (ইউজিপটু) প্রথমে শহরে বর্জ্য ব্যবস্থাপনার ওপর জরিপ চালায় এবং পৌরসভার ৩টি ওয়ার্ডে একটি পাইলট প্রকল্প গ্রহণ করে। এ প্রকল্পের আওতায় বাড়ি বাড়ি থেকে ময়লা-আবর্জনা সংগ্রহ করা হয়। এসব সংগৃহীত ময়লা-আবর্জনা নিয়ে শহরের আকুয়া ও শম্ভুগঞ্জে রাখা হয়। সেখানে পরবর্তীতে তৈরি করা হয় কম্পোস্ট সার।

ময়মনসিংহ পৌরসভার বর্জ্য ব্যবস্থাপনা নিষ্কাশন প্রকল্পের ফোকাল পার্সন ও শহর পরিকল্পনাবিদ মো. সোহরাব জানান, পর্যায়ক্রমে এ প্রকল্পটি পৌরসভার অন্যান্য ওয়ার্ডেও সম্প্রসারিত করার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। একই সঙ্গে স্থানীয় পরিবেশ অধিদফতরের আওতায় ময়মনসিংহকে পরিবেশবান্ধব গ্রীন সিটিতে উন্নীত করতে প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ক্লিন ডেভেলপমেন্ট ম্যাকানিজম (সিডিএম) এর প্রধান উদ্দেশ্য হচ্ছে, উন্নত দেশগুলোর মতোই উন্নয়নশীল দেশগুলোতে নিজস্ব উদ্যোগ গ্রহণের পাশাপাশি গ্রীন হাউজ গ্যাসের নি:সরণ কমানোর লক্ষ্যে উন্নয়নমূলক প্রকল্প গ্রহণ করা। বাংলাদেশ কিয়োটো প্রটোকল গ্রহণ করার পর ময়মনসিংহ পৌরসভাই প্রথম এ সফল প্রকল্পের আওতায় এসেছে।

ময়মনসিংহ পৌরসভার একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা জানান, কিয়োটো প্রটোকল মোতাবেক ময়মনসিংহেই প্রথম ক্লিন ডেভেলপমেন্ট ম্যাকানিজম (সিডিএম) চালু হয়েছে। এর ফলে শহরটিকে গ্রীন হাউজ ইফেক্ট থেকে রক্ষা করা যাবে। শহরের গ্রীন হাউজ নি:সরণ কমিয়ে পরিবেশ সুরক্ষা ও পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত করার মধ্যে ময়মনসিংহ পৌরসভাকে গ্রীন সিটিতে রূপায়িত করা হচ্ছে।

ময়মনসিংহ পৌরসভার স্যানিটারি ইন্সপেক্টর দীপক মজুমদার জানান, বাড়ি বাড়ি থেকে বর্জ্য সংগ্রহে ময়মনসিংহ পৌরসভার কয়েকটি ওয়ার্ডে কমিউনিটি ভিত্তিক সংগঠন করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, কয়েক বছর আগেও ময়মনসিংহ একটি নোংরা শহর হিসেবে পরিচিত ছিল। শহরের পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থাপনা ছিল একেবারেই সেকেলে। জলাবদ্ধতা ছিল এ শহরের অন্যতম প্রধান সমস্যা। ক্রমবর্ধমান জনসংখ্যার চাপে শহরে ময়লা আবর্জনা অপসারণে কোনো পরিকল্পিত উদ্যোগ ছিল না। ফলে বসবাসের জন্য শহরটি ছিল অনুপোযুক্ত।

ময়মনসিংহকে পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন পরিবেশসম্মত শহরে উন্নীত করার জন্য পৌরসভা বিশেষ উদ্যোগ গ্রহণ করে। দ্বিতীয় নগর পরিচালন ও অবকাঠামো উন্নীতকরণ (ইউজিপটু) প্রকল্পের আওতায় শহরে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা নিয়ে কাজ শুরু হয়।


বাংলাসংবাদ২৪/এনএম

আরও সংবাদ