Widget by:Baiozid khan

ঢাকা Thu November 22 2018 ,

  • Advertisement

সেই আলোচিত তিন্নি-মুন্নি আবারও সিলেট শহরে

Published:2013-01-03 05:34:12    

প্রথম পর্ব
সিলেট প্রতিনিধি : সিলেটের সেই আলোচিত তিন্নি-মুন্নিরা আবারও বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। পত্র/পত্রিকা তথা সামাজিক যোগাযোগ সাইট ফেইসবুকে তাদের গোপন মিশনের ছবি সহ যুবক কালেকশনের খবর প্রকাশিত হবার পর কিছুদিন গাঁ ঢাকা দিলেও শীত মৌসুম আসার সাথে-সাথেই আবার তারা গানের শিল্পি সেজে সিলেটের বিভিন্ন স্থানে নাইট শোতে নাচ-গান করে বেড়াচ্ছে।

ভদ্রসমাজে তিন্নি-মুন্নিরা গানের শিল্পি পরিচয় দিলেও মোঠা অংকের টাকার বিনিময়ে বিত্তবান যুবকদের রাতের রানী হয়ে রাত কাঠায় বিভিন্ন হোটেল সহ পিকনিক স্পটে। আবার বিভিন্ন সময় বিভিন্ন বিত্তবান যুবকদের স্বামী পরিচয়ে একাধিক স্থানে বাসা ভাড়া করে দিনাতিপাত করার অভিযোগ ও রয়েছে তিন্নি-মুন্নিদের বিরুদ্ধে।

এ নিয়ে দেশের প্রথম সারির দৈনিক পত্রিকা সহ সিলেটের স্থানীয় পত্রিকায় লেখালেখি হয়েছে অসংখ্যবার। বিভিন্ন পত্রিকা বিভিন্নভাবে তাদের পরিচয় তুলে ধরলেও তিন্নির লন্ডন প্রবাসী নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন বয়ফ্রেন্ড বৃহস্পতিবার মৌলভীবাজার নিউজ এজেন্সি(এমএনএ) সাথে ফোনে আলাপ কালে তিন্নি-মুন্নিদের কিছু তথ্য দেন।

ঐ যুবকের দেয়া তথ্যে জানা যায়, তিনিও কয়েক বছর আগে তিন্নি-মুন্নির মিথ্যা প্রেমের ফাঁদে পড়ে লাখ-লাখ টাকা খুইয়েছেন।তিনি জানতেন না তিন্নি-মুন্নির নষ্টামির কাহিনী। পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশের পর তিনি তাদের আসল চেহারা দেখতে পান। পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদ নিয়ে একদিন তিন্নির সাথে রাগা-রাগির পর থেকে তার সাথে সকল প্রকার যোগাযোগ বন্ধ।

লন্ডনী ঐ যুবকের দেয়া তথ্য মতে, তিন্নি একজন হিন্দু মেয়ে। তার পিতার নাম  বাবুল চন্দ্র দাশ, মাতার নাম ছবি রানী দাশ। মাতা ছবি রানী দাশ সিলেটের এক নামী-দামী স্কুল এন্ড কলেজের একজন আয়া। বর্তমান ঠিকানা ২৬ ছায়ানীড়, সরসপুর লামাবাজার সিলেট। ২০১০ সালে কোর্ট ম্যারিজের মাধ্যমে তিন্নির বিয়ে হয় লন্ডন প্রবাসী শাহজালাল আহমেদ নামে একজন মুসলিম ছেলের সাথে।
বিয়ের পর কিছুদিন সংসার হলেও তিন্নির একাধিক যুবক বয় ফ্রেন্ডের খবর জেনে শাহজালাল আহমেদ তিন্নির সাথে সর্ম্পক ছিন্ন করেন। এরপর বিভিন্ন কলাকৌশল অবলম্বন করে তিন্নি রাজ নামে আরেক লন্ডনী যুবকের সাথে প্রেমের সর্ম্পক করে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে বিয়ে বন্ধন ছাড়াই অবাধ মেলা-মেশা শুরু করে।

এদিকে মুন্নি, সুমন নামে সিলেট সালুটিকরের একজন লন্ডনী যুবকের সাথে তিন্নির মত মেলামেশা শুরু করে। তিন্নি-মুন্নিকে নিয়ে বিভিন্ন হোঠেল, পিকনিক স্পঠে সুমন ও রাজুর গোপন মিশনের আপত্তিকর ২৩ টি ছবি ফেইসবুকে তিন্নি-মুন্নি নামের একটি আইডিতে প্রকাশিত হয়েছে। তাদের সাথে মন্টু দেবনাথ নামে একজন দালালের ছবি ও পত্র/পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে। পত্রিকায় আমরা তিন্নি মুন্নিদের নিয়ে একটি ধারাবাহিক সংবাদ লেখার পর থেকে পর্দার আড়ালে থাকা গানের শিল্পি পরিচয়দানকারী সিলেটের আরো কিছু তিন্নি মুন্নির তথ্য প্রতারনার স্বীকার যুবকরা ফোনে জানিয়েছেন, যা ধারাবাহিক ভাবে তুলে ধরা হবে।

এর মধ্যে সুনামগঞ্জের সুমি আক্তার অন্যতম। সুমি আক্তারকে নিয়ে এর আগে আরেকটি প্রতিবেদন আমরা প্রকাশ করেছিলাম। প্রতিবেদন প্রকাশের পর সুমির ০১৭৩৫৭০৯৬৬৫ নাম্বারের ব্যবহৃত মোবাইল থেকে সাংবাদিকের কাছে ফোন করে এসব মিথ্যা বলে দাবী করলেও গোলাপগঞ্জের একজন লন্ডনী সহ তার সাথে থাকা অপর ২ বন্ধুর সাথে সুমির জাপলং পিকনিক স্পটে বেড়াতে যাওয়া সহ মৌলভীবাজারের একটি গানের অনুষ্টান শেষে ঐ ৩ যুবকের সাথে রাত্র ৩ টায় পাজারো গাড়ীতে চড়ে যাওয়ার ব্যাপারে সাংবাদিক প্রশ্ন করলে সুমি তার কোন সদুত্তর না দিয়ে লাইন কেটে দেন।

সুমি আক্তারের আরো বেশ কিছু তথ্য আমাদের কাছে রয়েছে যা পরবর্তী যেকোন সংখ্যায় প্রকাশ করা হবে। বিভিন্নজনের দেয়া তথ্যমতে তিন্নি-মুন্নিদের এসব অপকর্মের মুলহোতা রয়েছে বেশ কয়েকজন। তারাই বিত্তবান যুবকদের সাথে তিন্নি-মুন্নির পরিচয় করে দিয়ে মাঝ পথ থেকে হাতিয়ে নেয় মোঠা অংকের বখশিষ।
এদের মধ্যে রয়েছে,আব্দুল জলিল সামায়ুন, জাহানারা বেগম, ইসরাত জাহান ও শামীম আহমেদ নামে একজন মেতর।

প্রিয় পাঠক সিলেটের বহুল আলোচিত তিন্নি-মুন্নিদের নিয়ে আমরা ধারাবাহিক সংবাদ প্রকাশ করে আসছি, তাই তাদের ব্যাপারে কারো কাছে কোন তথ্য থাকলে ০১৭৬৭৪৫৩৭৪৪ নাম্বারে ফোন করে তথ্য দিয়ে সহায়তা করার জন্য অনুরুধ রইল। প্রয়োজনে তথ্য প্রদানকারীর পরিচয় গোপন রাখা হবে।


বাংলাসংবাদ২৪/এএইচ রাজ/একে কাব্য

আরও সংবাদ