Widget by:Baiozid khan
  • Advertisement

ইয়াবাতে নিজেদের বিলিয়ে দিচ্ছে উচ্চাভিলাশী মেয়েরা

Published:2013-08-23 17:08:10    

ঢাকা : আমাদের সমাজের অনেক বাবা মা নিজেদের বিবেক বুদ্ধি বিসর্জন দিয়ে বোধহীন মানুষের মতো অর্থ আর প্রতিপওির পেছনে ছুটছেন। তারা কি একবারও ভাবেন, তাদের এই টাকা কোন কাজে লাগবে? বাস্তবতা বলে তাদের এই টাকা–পয়সা ছেলেমেয়েদের অহঙ্কারী, উচ্ছৃঙ্খল, নেশাগ্রস্ত আর অসামাজিক করার ক্ষেত্রে বিশাল ভূমিকা রাখছে।

প্রভাবশালী পরিবারের অগাধ টাকার জোয়ারে ইয়াবা নেশায় নিজেদের বিলিয়ে দেয় উচ্চবিত্ত পরিবারের মেয়েরা। সমাজে খ্যাতিমান এসব পরিবারের মেয়েরা সোসাইটি রক্ষা করতে গিয়ে নেশায় ধ্বংস করে নিজের জীবন। অন্যদিকে, মাদক নিরাময় কর্মীদের মতে, দেশে নেশাগ্রস্থ মেয়েদের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। তাই এখনই প্রতিকার নিতে হবে প্রতিটি পরিবারকে, ভালবাসা দিয়ে ফিরিয়ে আনতে হবে বিপথগামীদের।

সাত বছর বয়সী এক কন্যা সন্তানের জননী এক নারী আভিজাত্যের মোহে নিজেকে বিলিয়ে দিয়েছেন নেশার অন্ধকারে। এমনই মরন নেশায় জড়িয়ে দিয়েছে হাজারো পরিবারের উচ্চাভিলাশী মেয়েরা। তবে, তারা অনেকে মানতে রাজি নয় নেশার জন্য দায়ী শুধু বন্ধু সমাজ। এসব বিপথগামী মেয়েদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনতে কাজ করা আপন'র এক কর্মীর দাবী, ইয়াবার নেশায় বাড়ছে নারীর মিছিল। তার মতে, নেশা থেকে ফেরাতে মেয়েদের প্রতি নজরদারীর পাশাপাশি বিলিয়ে দিতে হবে ভালবাসা।

সম্প্রতি ঘটে যাওয়া ঐশীর ঘটনা আমাদের চোখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দিল, সমাজে উচ্চবিত্ত পরিবারের মেয়েরা কত দ্রুত ধ্বংসের দিকে যাচ্ছে এবং তারা কত ভংঙ্কর হচ্ছে।

দেশে সামাজিক নিষ্ঠুরতা দিন দিন বেড়ে চলছে। এ নিষ্ঠুরতা সমাজ থেকে দূর করতে হলে সর্বপ্রথম পরিবারকেই এগিয়ে আসতে হবে। সমাজ বা রাষ্টের ওপর ভরসা করে বসে থাকার অর্থ অন্ধকারে থাকা। কারণ ছেলেমেয়েদের নষ্ট হবার পেছনে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে পরিবারের ভূমিকাই বেশি। তাই পরিবারকেই এর দায়িত্ব নিতে হবে।

বাংলাসংবাদ২৪/মুকুল/এসএইচএস

আরও সংবাদ