Widget by:Baiozid khan
শিরোনাম:

ঢাকা Sat December 14 2019 ,

  • Techno Haat Free Domain Offer

বাংলাদেশ ব্যাংকে গ্রাহকের অভিযোগ ৭ হাজার ছাড়িয়েছে

Published:2013-09-07 13:56:23    

ঢাকা: চলতি ২০১৩-১৪ অর্থবছরের জুলাই পর্যন্ত দুই বছর চার মাসে বাংলাদেশ ব্যাংকে গ্রাহকরা অভিযোগ করেছেন ৭ হাজার ২৯৭টি। বাংলাদেশ ব্যাংকের এফআইসিএসডির সর্বশেষ প্রতিবেদনে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১১ সালের ১ মার্চ থেকে চলতি বছরের জুলাই পর্যন্ত টেলি ও মুঠোফোনের মাধ্যমে ২ হাজার ৪৭৬টি এবং ই-মেইল ও ডাকযোগে ৪ হাজার ৮২১টি অভিযোগগুলো এসেছে। এ সব অভিযোগের মধ্যে গত জুলাই পর্যন্ত নিষ্পত্তি হয়েছে ৫ হাজার ৭০৮টি। এর মধ্যে টেলিফোনে ২ হাজার ৪৭৬টি এবং ই-মেইল ও ডাকযোগে ৩ হাজার ২৩২টি। আর এখনও অনিষ্পন্ন রয়ে গেছে এক হাজার ৫৮৯টি অভিযোগ।

যার পুরোটাই ই-মেইল ও ডাকযোগে এসেছে। অভিযোগের মধ্যে শুধু গত জুলাই মাসে এসেছে ৩৪৪টি। এর মধ্যে টেলিফোনের মাধ্যমে ১৩৩টি এবং ই-মেইল ও ডাকযোগে ২১১টি অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা। ওই প্রতিবেদনে আরও দেখা গেছে, জুলাই মাসে অভ্যন্তরীণ বিল সংক্রান্ত ৮২টি, সাধারণ ব্যাংকিংয়ে ৮৯টি, ঋণ ও অগ্রিম ২২টি, কার্ড সংক্রান্ত ১০টি এবং অন্যান্য ৫৫টি অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এর মধ্যে সরকারি সোনালী ব্যাংকের বিরুদ্ধে ৫৯টি এবং বেসরকারি ব্র্যাক ব্যাংকের বিরুদ্ধে ৩২টি অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা। ব্যাংকগুলো উত্তম গ্রাহক সেবা দেয়ার জন্য শহর থেকে শুরু করে গ্রামেও ছড়িয়ে পড়েছে। সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের ঊর্ধ্বতন নির্বাহী থেকে শুরু করে মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তারাও উত্তম সেবা দেয়ার জন্য গ্রাহকের কাছে যাচ্ছেন। অথচ এসব সেবার অন্তরালে হচ্ছে প্রতারণার ঘটনা। দেশি-বিদেশি ৫৩টি ব্যাংক এখন তাদের সেবা কার্যক্রম পরিচালনা করছে।
কিন্তু কোন কোন ব্যাংকের এক শ্রেণীর অসৎ কর্মকর্তা সুযোগ পেলেই অপকর্মে জড়িয়ে পড়ছেন। তাই অভিযোগের সংখ্যা বেড়েই চলেছে বলে মনে করছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারা।

উল্লেখ্য, গ্রাহকের অভিযোগ শোনার জন্য ২০১১ সালের ১লা মার্চ গঠন করা হয় গ্রাহক স্বার্থ সংরক্ষণ কেন্দ্র। পরে এর পরিধি বাড়তে থাকায় আরও বড় আকারে সাজিয়ে গঠন করা হয়েছে ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টিগ্রিটি অ্যান্ড কাস্টমার সার্ভিস বিভাগ।


বাংলাসংবাদ২৪/এনএম/বিএইচ
 

আরও সংবাদ