Widget by:Baiozid khan
শিরোনাম:

ঢাকা Wed April 21 2021 ,

  • Techno Haat Free Domain Offer

সাকার রায় পড়া শুরু

Published:2013-10-01 11:00:50    


ঢাকা: মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় অভিযুক্ত বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সাংসদ সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীর মামলায় ১৭২ পৃষ্ঠার পূর্ণাঙ্গ রায় পড়া শুরু করা হয়েছে।

মঙ্গলবার চেয়ারম্যান বিচারপতি এটিএম ফজলে কবীরের নেতৃত্বে  গঠিত তিন সদস্যের আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ সকাল ১০:৪২ মিনিটে এ রায়ের সারমর্ম কপি পড়া শুরু করেন।
সকাল ১০:৩৫ মিনিটে সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরিকে ট্রাইব্যুনালের এজলাস কক্ষে তোলা হয়। বিচারপতিরা ১০;৪০ মিনিটে আদালতে প্রবেশ করেন। তারপর সদস্য বিচারপতি আনোয়ারুল হক প্রথম অংশ পড়তে শুরু করেন।

প্রায় দেড় মাস পর সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরির রায় ঘোষণা করতে যাচ্ছে ট্রাইব্যুনাল-১। সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরির মাধ্যমে ট্রাইব্যুনাল-১ এ তৃতীয় কোন মামলার রায় ঘোষণা হতে যাচ্ছে।

গত ১৪ আগস্ট  সালাহউদ্দিন কাদেরের রায় যেকোনো দিন ঘোষণা করা হবে বলে অপেক্ষমাণ(সিএভি) রেখে দেন ট্রাইব্যুনাল। প্রায় এক বছর তিন মাস বিচারিক কার্যক্রম শেষে তার মামলাটির সমাপ্তি ঘটে।

গত ২৮ জুলাই সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের যুক্তি উপস্থাপন শুরু হয়। ৩১ জুলাই যুক্তি উপস্থাপন প্রথম পর্যায়ে শেষ করেন রাষ্ট্রপক্ষ।

এরপর ১ আগস্ট থেকে সালাহউদ্দিন কাদেরের পক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শুরু করেন তার আইনজীবী হেনা।

গত ২৪ জুলাই সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীর বিরুদ্ধে মামলায় আসমিপক্ষের সাফাই সাক্ষ্যগ্রহণ সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়। তার পক্ষে সাফাই সাক্ষ্য দিয়েছেন তিনি নিজেসহ মোট চারজন। অন্য তিন সাফাই সাক্ষী হলেন তার কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় জীবনের বন্ধু নিজাম আহমেদ, এশিয়া-প্যাসিফিক ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের সদস্য কাইয়ুম রেজা চৌধুরী এবং সাবেক রাষ্ট্রদূত আব্দুল মোমেন চৌধুরী।

এর আগে সালাহউদ্দিন কাদেরের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিয়েছেন এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মো. নূরুল ইসলামসহ রাষ্ট্রপক্ষের মোট ৪১ জন সাক্ষী। আর চারজন সাক্ষীর তদন্ত কর্মকর্তার কাছে দেয়া জবানবন্দি সাক্ষ্য হিসেবে গ্রহণ করেছে ট্রাইব্যুনাল।
 
এছাড়া অন্য চার সাক্ষী মৃত জ্যোৎস্না পাল চৌধুরী, মৃত জানতি বালা চৌধুরী ও মৃত আবুল বশর এবং ভারতে থাকা বাদল বিশ্বাসের তদন্ত কর্মকর্তার কাছে দেয়া জবানবন্দিকেই সাক্ষ্য হিসেবে গ্রহণ করেছেন ট্রাইব্যুনাল।

হরতালে ভাঙচুর-অগ্নিসংযোগের একটি মামলায় ২০১০ সালের ১৬ ডিসেম্বর গ্রেফতার করা হয় বিএনপির সংসদ সদস্য সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীকে। পরে ১৯ ডিসেম্বর তাকে একাত্তরের মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়। ৩০ ডিসেম্বর আদালতের নির্দেশে প্রথমবারের মতো আদালতে হাজির করা হয়।

গত বছরের ৪ এপ্রিল মানবতাবিরোধী অপরাধে মোট ৭২টি ঘটনায় ২৩টি অভিযোগে অভিযুক্ত করেন ট্রাইব্যুনাল।

বাংলাসংবাদ২৪/সাকিল আহমেদ/এসএস
 

আরও সংবাদ