Widget by:Baiozid khan
শিরোনাম:

ঢাকা Wed December 19 2018 ,

  • Advertisement

বাংলাদেশ ব্যাংকের টাকার যাদুঘর উদ্বোধন

Published:2013-10-05 15:53:20    

ঢাকা : ইতিহাস, ঐতিহ্য এবং সংস্কৃতির বিকাশকে ধরে রাখা এবং কিছুক্ষণের জন্য হলেও বাংলাদেশ ব্যাংকের ‘টাকা যাদুঘর’ দেখে ইতিহাস ও ঐতিহ্য রক্ষায় সকলের প্রতি আহবান জানিয়েছেন জাতীয় সংসদের স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী।

বাংলাদেশ বাংলাদেশ ব্যাংক ট্রেনিং একাডেমীতে বাংলাদেশ ব্যাংক আয়োজিত ‘টাকা যাদুঘর’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি’র বক্তৃতায় স্পীকার এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্ণও ড. আতিউর রহমান।

স্পীকার বলেন, মুদ্রা বা টাকা নির্বাক নয়, তা ইতিহাসের কথা বলে। আমাদের নিজস্ব কারেন্সি ‘টাকা’ আমাদের স্বাধীনতার বড় প্রতীক। বাংলাদেশে প্রচলিত নোটের চিত্রকর্ম  আমাদের স্মরণ করিয়ে দেয় ভাষা আন্দোলনের বীর শহীদানদের কথা, মায়ের ভাষা বাংলা ভাষার প্রতি আমাদের অকৃত্রিম ভালবাসার কথা, মহান মুক্তিযুদ্ধের বীরত্বগাঁথা স্বাধীনতা সংগ্রামের ইতিহাস। অতীতের ইতিহাস যেন হারিয়ে না যায় আমাদেরকে সে ব্যবস্থা করতে হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্ণর বলেন, আমাদের সমাজ ব্যবস্থার যোগসুত্র স্থাপনের জন্য প্রাচীনকালের মুদ্রাসহ সকল নোট সংরক্ষণ করা একান্তই প্রয়োজন। সমাজ বিবর্তনের ইতিহাস অনেক দীর্ঘদিনের। বিবর্তনের ধারা এক সংগে নিয়ে আসার লক্ষ্যে বাংলাদেশ ব্যাংক এর ‘টাকা যাদুঘর’ স্থাপন একটি অনন্য প্রয়াস।
টাকা জাদুঘরে সংরক্ষিত মুদ্রাগুলোর মধ্যে রয়েছে প্রাচীনতম ছাপাঙ্কিত রৌপ্য মুদ্রা, হরিকেলের মুদ্রা, ইন্দো-পার্থিয়ান মুদ্রা, কুশান মুদ্রা, কুচবিহারের মুদ্রা, বাংলার স্বাধীন সুলতানী আমলের মুদ্রা, পরাক্রমশালী মোঘল সম্রাটদের মুদ্রা। আরো রয়েছে ভারতে মোঘল শাসনের সমাপ্তির পর ১৮৩৫ সাল থেকে প্রচলিত  বৃটিশ ভারতীয় মুদ্রা। স্মরণাতীত কাল থেকে ঊনিশ শতকের শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশে খুচরা বেচাকেনায় কড়িই ছিল প্রাধান বিনিময় মাধ্যম। প্রাচীন বাংলায় ব্যবহৃত এসকল কড়িও জাদুঘরে প্রদর্শিত হচ্ছে।

বাংলাদেশ ছাড়াও বর্তমান সময়ের যুক্তরাষ্ট্র, ইংল্যান্ড, স্পেন, সুইজারল্যান্ড, জার্মানী, অস্ট্রেলিয়া, জাপান, আর্জেন্টিনা, নিউজিল্যান্ড, দক্ষিণ আফ্রিকা, নেপাল, ভুটান, ভারত, পাকিস্তান এবং বাংলাদেশসহ প্রায় সকল দেশের মুদ্রা। কাগুজে নোট সহ এ জাদুঘরে সংরক্ষিত রয়েছে সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়ন, সাবেক চেকোশ্লোভাকিয়া, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ পূর্ববর্তী জাপানী ডলার, ইতালী, সাবেক বিভক্ত জার্মানী, আফগানিস্তান, চীন, ল্যাটিন আমেরিকা, হাঙ্গেরী, বুলগেরিয়া, ভিয়েতনাম এবং কমিউনিস্ট আমলের পোল্যান্ডের নোট।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্ণর মোঃ আবদুল কাশেমের সভাপতিত্বে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন টাকা যাদুঘর বাস্তবায়ন কমিটি’র সভাপতি চিত্রশিল্পী হাশেম খান, বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক দাশগুপ্ত অসীম কুমার, অমলেন্দু সাহা প্রমূখ।


বাংলাসংবাদ২৪/এনএম/আর

আরও সংবাদ