Widget by:Baiozid khan
শিরোনাম:

ঢাকা Sun February 17 2019 ,

  • Techno Haat Free Domain Offer

কৃত্রিম রক্ত তৈরির পদ্ধতি আবিস্কার

Published:2013-11-15 16:25:16    

বাংলাসংবাদ২৪: রোমানিয়ার বিজ্ঞানী ড. রাডু সিলাঘি-দামিত্রেস্কু এবং তার দল টানা ছয় বছর গবেষণার পর কৃত্রিম রক্ত তৈরি নতুন পদ্ধতি আবিস্কার করেছেন।
 

গবেষকরা জানান, কৃত্রিম ওই রক্ত তৈরিতে হিমোগ্লোবিনের পরিবর্তে ব্যবহার করা হয়েছে হেমেরাইথ্রিন, সামুদ্রিক পোকা থেকে নিষ্কাশন করা হয়েছে বিশেষ প্রোটিন এবং সেগুলোকে পানি ও লবণের সঙ্গে মিশিয়ে তৈরি করা হয়েছে কৃত্রিম রক্ত।

এতে হেমেরাইথ্রিন অক্সিজেন এক স্থান থেকে অন্য স্থানে স্থানান্তর করে। তবে এর আগের কৃত্রিম-রক্ত পরীক্ষা হিমোগ্লোবিনের ওপর নির্ভরশীল ছিল।

প্রথমে ইঁদুরের ওপর গবেষণা চালিয়ে ড. রাডু সিলাঘি-দামিত্রেস্কু এবং তার দল কৃত্রিম রক্ত
তৈরির পদ্ধতি পেয়েছেন।   

গবেষকরা আরো জানিয়েছেন, তৈরি রক্ত দিয়ে ইঁদুরের ওপর পরীক্ষা করে কোনো পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায় নি। তাই এখন গবেষকদের লক্ষ্য মানুষের শরীরে এটির ব্যবহার যাচাই করে দেখা।

কৃত্রিম ওই রক্ত তৈরিতে হিমোগ্লোবিনের পরিবর্তে ব্যবহার করা হয়েছে হেমেরাইথ্রিন, সামুদ্রিক পোকা থেকে নিষ্কাশন করা হয়েছে বিশেষ প্রোটিন এবং সেগুলোকে পানি ও লবণের সঙ্গে মিশিয়ে তৈরি করা হয়েছে কৃত্রিম রক্ত। এতে হেমেরাইথ্রিন অক্সিজেন এক স্থান থেকে অন্য স্থানে স্থানান্তর করে। তবে এর আগের কৃত্রিম-রক্ত পরীক্ষা হিমোগ্লোবিনের ওপর নির্ভরশীল ছিল।

হিমোগ্লোবিন এমন একটি বিশেষ প্রোটিন যা সকল প্রাণীর রক্তে অক্সিজেন স্থানান্তর করে। কিন্তু দেখা গেছে কৃত্রিম রক্তের হিমোগ্লোবিন জীবিত প্রাণীর দৈহিক এবং রাসায়নিক চাপ প্রতিরোধ করতে পারে না। এক্ষেত্রে রোমানিয়ান গবেষকরা বলছেন হেমেরাইথ্রিন অনেক বেশি উপযুক্ত।

কৃত্রিম রক্ত প্রসঙ্গে সিলাঘি-দুমিত্রেসু জানিয়েছেন, রক্তদানে সংক্রমণের যে ঝুঁকি থাকে তা কৃত্রিম রক্তের সাহায্যে কমিয়ে আনা সম্ভব। তিনি আরো জানিয়েছেন, কয়েক দশক ধরে মানুষ সাময়িক বিকল্প হিসেবে ব্যবহারের উদ্দেশ্যে কৃত্রিম রক্ত তৈরির চেষ্টা চালিয়ে আসছে। অনেক দল এটি নিয়ে কাজ করছে এবং দক্ষিণ আফ্রিকায় এ রকম একটি পণ্য সীমিত সংখ্যক মানুষের ওপর ব্যবহার করার অনুমতি দেয়া হয়েছে।


বাংলাসংবাদ২৪/টিআর
 

আরও সংবাদ