Widget by:Baiozid khan
শিরোনাম:

ঢাকা Thu September 20 2018 ,

পুঁজিবাজারে ইতিবাচক ধারা অব্যাহত

Published:2013-11-20 17:06:54    

বাংলাসংবাদ২৪: দেশের প্রধান দুই পুঁজিবাজারের ইতিবাচক ধারা আজও অব্যাহত ছিল। বাজার সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, বর্তমানে স্বাভাবিক অবস্থায় রয়েছে। লেনদেন এবং সূচকের বৃদ্ধিও স্বাভাবিক পর্যায়ে থাকলেও তা ধরে রাখাই বড় চ্যালেঞ্জ।

গত কয়েক দিন ধরেই দেশের প্রধান দুই পুজিবাজারে স্থিতিশীলতা লক্ষ্য করা যাচ্ছে।  বুধবারও এর ব্যতিক্রম হয়নি।

সূচকের ঊর্ধ্বগতি দিয়ে দেশের উভয় পুঁজিবাজারের লেনদেন শেষ হয়েছে। রাজনৈতিক অস্থিরতার মধ্যেইও নানা জল্পনা কল্পনার পর বর্তমান সরকারের শেষ মেয়াদে বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণ বাড়ার কারণে প্রধান বাজার ঢাকা স্টক এক্সঞ্জের লেনদেন অনেকদিন পর ৮০০ কোটি টাকা ছাড়িয়েছে। অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সঞ্জের সব ধরনের সূচকই বেড়েছে। সেখানে আগের দিনের চেয়ে সামান্য লেনদেনও বেড়েছে।

বুধবার ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে বেশিরভাগেরই দর বেড়েছে। ডিএসইতে মোট ২১৫টি কোম্পানির দর বেড়েছে, কমেছে ৫৪টি কোম্পানির দর এবং অপরিবর্তিত ছিল ১৮টি কোম্পানির দর। ডিএসইতে মোট ৮৮৯ কোটি টাকার শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে। যা আগের দিনের চেয়ে ১০১ কোটি টাকা বেশি। মঙ্গলবার সেখানে মোট ৭৮৮ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছিল।
বুধবার ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স সূচক ৫৮ পয়েন্ট বেড়ে ৪৪৩৯ পয়েন্ট দাঁড়ায়। ডিএসই ৩০ সূচক ২৬ পয়েন্ট বেড়েছে। ডিএসইতে এদিন ২৮৭ টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বেড়েছে ২১৫টি, কমেছে ৫৪টি এবং অপরিবর্তীত রয়েছে

১৮টি কোম্পানির শেয়ার দর। সিএসইতে ২২৫টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয় । এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৬৫টি, কমেছে ৪৫টি ও অপরিবর্তীত রয়েছে ১৫টি কোম্পানির শেয়ার দর।

সাধারণ বিনিয়োগকারীরা বলেন, আমরা যারা শেয়ার ব্যবসা করে জীবন ধারণ করি তাদের ভালো থাকা না থাকা বাজারের ওঠা-নামার ওপর নির্ভর করে। বর্তমান বাজার পরিস্থিতি নিয়ে তারা সন্তুষ্ট। তবে এই ধারা অব্যাহত থাকতে হবে। কারণ, বাজার বারবার আলো আঁধারের আর্বতে দুলতে থাকলে আমরা বিনিয়োগে আগ্রহ হারিয়ে ফেলি। এজন্য কর্তৃপক্ষের উচিত হবে বর্তমান বাজার পরিস্থিতির ওপর কঠোর নজরদারী করা। অনেক দিন পর বাজারে  ছন্দে ফিরছে। তাই এ বাজার থেকে সুযোগ সন্ধানীরা যাতে ফায়দা লুটতে না পারে সেদিকে দৃষ্টি রাখা দরকার।

এনএম/আর

আরও সংবাদ