Widget by:Baiozid khan
  • Advertisement

সাঁথিয়ায় গার্মেন্টস কর্মী গণধর্ষন

Published:2014-03-21 14:55:15    

পাবনা প্রতিনিধি: সাঁথিয়া উপজেলার ক্ষেতুপাড়া ইউনিয়নের রঘুরাম পুর গ্রামের মৎস্যজীবি পাড়ায় গণধর্ষনের শিকার গার্মেন্টস কর্মী বর্ষা খাতুন(২২) পাবনা আদালতে ১৬৪ ধারা জবানবন্ধি দিয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকালে থানা পুলিশ সূত্রে জানাযায়, বর্ষা পাবনার আদালতে বলেন, গত রোববার বান্ধবী মুর্শিদার সঙ্গে আরও একজন বান্ধবী লাকি(১৫)সহ আমি সাঁথিয়া উপজেলার রঘুরামপুর গ্রামের মৎস্যজীবি পাড়া বান্ধবীর খালা সবুরজানের বাড়িতে বেড়াতে আসি।

সোমবার দিবা-গত রাতে মৎস্যজীবি পাড়ার সোমছেরের ছেলে একরাম(২৫), মাহাতাবের ছেলে মহর(২৮), মজিদের ছেলে মিঠুন(২৫), আবু তালেবের ছেলে নাজমূল(৩০), ও ইউছুবের ছেলে সাইয়িদ(৩২)সহ অজ্ঞাত ১০/১২জন লম্পট জোড় পূর্বক ঘরে ঢুকে মুখ বেধে তাকে মাঠের মধ্যে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষন করে।

এ দিকে বর্ষা ও লাকীকে গ্রামে নিয়ে আসা বান্ধবি মোর্শেদার স্বামী সুজানগর উপজেলার বিরাহিমপুর গ্রামের আকবার আলী মেম্বারের ছেলে রউব ঘটনার সময় একই ঘরে ছিলেন।

লম্পটরা যখন (বর্ষা কে) তাকে নিয়ে যায় তখন রউবের ভূমিকা ছিল রহস্য জনক। এলাকায় কথিত রয়েছে রউব বর্ষাকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে টাকার বিনিময়ে লম্পটদের হাতে তুলে দেয়। বুধবার সকালে রউবকে থানা পুলিশ আটক করলেও রাতেই আসামী বাদীতে পরিণত হওয়ায় জনমতে সন্দেহ সৃষ্টি হয়।

এ দিকে সাঁথিয়ার রঘুরামপুর মৎস্যজীবি পাড়ায় পূর্ব থেকেই এহেন কোন কাজ নেই যা সেখানে হয় না। অভিযোগ রয়েছে উক্ত পাড়ায় কতিপয় ব্যক্তির ছত্রছায়ায় প্রতিনিয়ত জুয়া, মাদকের আড্ডা ও নারী কেলেঙ্কারীর মত ঘটনা ঘটছে। অপর দিকে ঘটনার ৫ দিন অতিবাহিত হলেও থানা পুলিশ এখন পর্যন্ত কোন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারছে না।

প্রকাশ গত সোমবার (১৭ মার্চ)পাবনার সাঁথিয়ায় বান্ধবির বাড়িতে বেড়াতে এসে গার্মেন্টস কর্মী বর্ষ(২০) গণ ধর্ষনের শিকার হন।

বাংলাসংবাদ২৪/উজ্জল/মাক্কী

আরও সংবাদ