Widget by:Baiozid khan
  • Advertisement

পেটের মধ্যে সোনার বার!

Published:2014-04-18 16:32:43    

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতে এক ব্যবসায়ীর পেট কেটে প্রায় চার কেজি ওজনের বেশ কয়েকটি সোনার বার পাওয়া গেছে। চলতি মাসের গোড়ার দিকে পেটে ব্যাথা, বমিসহ বিভিন্ন শারীরিক সমস্যা নিয়ে দিল্লির এক হাসপাতালে  ভর্তি হয়েছিলেন ৬৩ বছরের ওই ব্যবসায়ী।

চিকিৎসকদের তিনি জানান, স্ত্রীর সঙ্গে ঝগড়ার পর  রাগ করে তিনি একটি বোতলের ছিপি গিলে ফেলেছেন। এরপর থেকে তার পেট ব্যাথা শুরু হয়েছে। গত ৯ এপ্রিল তার পেটে অস্ত্রোপচার করেন হাসপাতালের এক সার্জন। কিন্তু পেট কাটার পর চিকিৎসকের চোখ তো ছানাবড়া! ওই রোগীর পেটে সাজানো রয়েছে ১২টি সোনার বার। ভারতের পুলিশ এবং কাস্টমসের লোকজন এখন ওই ব্যবসায়ীকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে।

প্রসঙ্গত, বিশ্বের দেশগুলোর মধ্যে ভারতের লোকজনই সবচেয়ে বেশি স্বর্ণ ব্যবহার করে থাকে। সম্প্রতি দেশটিতে রেকর্ড পরিমাণ সোনা চোরাচালানের ঘটনা ঘটেছে। সেখানে মুদ্রাস্ফীতি দেখা দেয়ায়, বিদেশ থেকে প্রচুর সোনা আমদানি করা হয়েছে।

দিল্লির স্যার গঙ্গারাম হাসপাতালের সিনিয়র সার্জন সি এস রামচন্দ্র তার অপারেশন করেছিলেন। সে দিনের অভিজ্ঞতার বর্ণনা করতে গিয়ে তিনি বলেন, আমার জীবনে এর আগে এমন ঘটনা দেখিনি। এবারই প্রথম কোনো রোগীর পেট কেটে সোনা বের করলাম। এর আগে অবশ্য এক রোগীর পেট থেকে এক কেজি ওজনের পাথর অপসারিত করেছিলাম। তাই বলে সোনা বের করে আনা সত্যিই একটি অবিশ্বাস্য ঘটনা।

তিনি আরো বলেন, দীর্ঘ তিন ঘণ্টা ধরে চলে অপারেশন।  তিনি একজন বয়স্ক ব্যক্তি হওয়ায় আমরা সতর্কতার সঙ্গে অস্ত্রোপচার করছিলাম। পেট কাটার পর সেখান থেকে ১২টি সোনার বার উদ্ধার কেরা হয়েছে। এর আগেও ওই ব্যবসায়ীর পেটে আরো চারবার অস্ত্রোপচার করা হয়েছিল বলে তিনি জানান। এতবার পেটে ছুরি চালানোর রহস্য অবশ্য জানা যায়নি।

বাংলাসংবাদ২৪/বিএইচ

আরও সংবাদ