Widget by:Baiozid khan

ঢাকা Thu November 22 2018 ,

  • Advertisement

পবিত্র লাইলাতুল কদর

Published:2014-07-25 21:25:24    

বাংলাসংবাদ২৪ : ২৬ রমজান দিবাগত রাত হাজার রাতের চেয়েও বেশী পূণ্যময় পবিত্র লাইলাতুল কদর। ‘হাজার রাতের চেয়েও উত্তম’ পবিত্র লাইলাতুল কদর সমগ্র মানবজাতির জন্য অত্যন্ত বরকতময় ও পুণ্যময় রজনী। এ রজনীতে ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা আল্লাহর নৈকট্য ও রহমত লাভের আশায় ইবাদত বন্দেগী করে অতিবাহিত করে থাকেন।

দিবাভাগে পবিত্র জুমাতুল বিদা এবং দিবালোকের অবসানে পবিত্র লাইলাতুল কদর। রহমত মাগফেরাত ও নাজাতের মাসে আমাদের জন্য এ বছর এক দুর্লভ প্রাপ্তি-দুটি ইবাদতের ও অধিক সাওয়াব অর্জনের দিবস ও রজনী কাছাকাছি উদ্যাপিত হচ্ছে। তাই মসজিদ ও সমাজের ধর্মীয় স্থাপনাগুলো নতুন সাজে সজ্জিত। জুমার দিনের ফজিলত অন্য যে কোন দিনের চেয়ে বেশি এ কথা বলাই বাহুল্য। মাহে রমজানের সর্বশেষ জুমা অর্থাৎ জুমাতুল বিদা ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের হৃদয়ে দাগ কাটে বেশি। কারণ এদিন মসজিদে মসজিদে ইমাম খতিবগণ হৃদয়গ্রাহী সুরে মাহে রমজানকে আনুষ্ঠানিক বিদায় জানান।

এ উপলক্ষে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকারমসহ দেশের সব মসজিদে রাতব্যাপি বিশেষ ইবাদত বন্দেগী, ওয়াজ মাহফিল, ধর্মীয় বয়ান ও আখেরী মোনাজাতের আয়োজন করা হয়েছে। পবিত্রতম রজনী উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। এছাড়া বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াও এ উপলক্ষে বাণী দিয়েছেন।

রাষ্ট্রপতি মহিমান্বিত রজনী পবিত্র লাইলাতুল কদর উপলক্ষে বাংলাদেশসহ মুসলিম বিশ্বের সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানান। রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘হাজার মাসের চেয়েও উত্তম’ পবিত্র লাইলাতুল কদর সমগ্র মানবজাতির জন্য অত্যন্ত বরকতময় ও পুণ্যময় রজনি। মুসলমানদের পবিত্র ধর্মীয় গ্রন্থ আল-কোরান লাইলাতুল কদরে নাজিল হয়।

বাণীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, পবিত্র কোরআনের শিক্ষা আমাদের পার্থিব সুখ-শান্তির পাশাপাশি আখিরাতের মুক্তির পথ দেখায়। তিনি বলেন, সিয়াম সাধনার মাস রমজানের মহিমান্বিত রাত লাইলাতুল কদর। পবিত্র এই রাতে ইবাদত-বন্দেগীর মাধ্যমে আমরা মহান আল্লাহর নৈকট্য লাভ করতে পারি। অর্জন করতে পারি তাঁর অসীম রহমত, বরকত ও মাগফেরাত।

এ উপলক্ষে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে শুক্রবার সকাল ১১ থেকে বিভিন্ন কর্মসূচি শুরু হয়েছে। রাত ৩টা পর্যন্ত আলোচনা, ইবাদত-বন্দেগিসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হবে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে- সকাল ১১টা থেকে সোয়া ১২টা পর্যন্ত শবে ক্বদরের গুরুত্ব ও তাৎপর্য শীর্ষক আলোচনা সভা, বেলা ২টা থেকে সোয়া ৩টা পর্যন্ত পবিত্র কুরআনের ২৬তম প্যারার তাফসির, রাত ৮টা থেকে পৌনে ৯টা পর্যন্ত পবিত্র কুরআনের ৩০ম প্যারার সংক্ষিপ্ত আলোচনা, রাত সাড়ে ১০টায় থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত শবে ক্বদর : আলোচনা ও মিলাদ মাহফিল এবং রাত ১২ থেকে ৩টা পর্যন্ত কিয়ামুল রাইল (বিশেষ মোনাজাত )।

বাংলাসংবাদ২৪/আইএইচ

আরও সংবাদ