Widget by:Baiozid khan
  • Advertisement

‘লিখিত পরীক্ষায় পাস করো, ভাইভা আমরা দেখবো’

Published:2014-11-13 14:08:12    

প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্য করে বলেছেন, বিসিএসে লিখিত পরীক্ষায় পাস করো। ভাইভা আমরা দেখবো। যারা ছাত্রলীগ করেছে তাদেরকে প্রতিষ্ঠিত করতে হবে। আমরা যখনই সুযোগ্য কারও বায়োডাটা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে যাই, তিনি  জিজ্ঞেস করেন তারা কি ছাত্রলীগ করেছে? যেভাবেই হোক তাদের জন্য ব্যবস্থা করো। বুধবার সকালে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ আয়োজিত জেল হত্যা দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) মিলনায়তনে এ আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম বলেন, ছাত্রলীগের যারা প্রতিদ্বন্দ্বী তাদের অন্য কোন কাজ নেই। অথচ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের অনেক কিছুতেই ব্যস্ত থাকতে হয়। এজন্য লিখিত পরীক্ষায় একটু ভাল করলেই ছাত্রলীগের ছেলেদের চাকরি পাওয়ার ব্যাপারে বিবেচনা করা হবে। তিনি বলেন, যেহেতু তোমাদের পড়ার সময় কম তাই তোমরা রাত জেগে একটু পড়াশোনা করো। আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন হিসেবে তোমাদের পাশে দাঁড়ানো আমাদের উচিত। তোমরা কি মনে করো তোমাদের প্রতি আমার চেয়ে, নেত্রীর চেয়ে অন্য কারও দরদ বেশি আছে? আমরা তো জান-প্রাণ দিয়ে চেষ্টা করি।


তিনি বলেন, তোমাদের মধ্যে যারা সিনিয়র তাদের বিষয়ে আমরা চিন্তা করছি। ছাত্রলীগের বর্তমান নেতৃত্বের আগে যারা বেরিয়ে গেছে তাদের এখন প্রতিষ্ঠা হওয়া দরকার। তাদেরকে প্রতিষ্ঠিত করতে হবে। তিনি আরও বলেন, তোমাদেরকেই দেশের ভবিষ্যৎ সরকারি চাকরি, ব্যবসাসহ সব ক্ষেত্রে সেরা হতে হবে। আমরা সব সময় তোমাদের পাশে আছি, ছিলাম, থাকবো।

প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা বলেন, ৫ই জানুয়ারির নির্বাচনের আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খালেদা জিয়াকে ফোন করে সর্বদলীয় সরকার গঠনের প্রস্তাব দিয়েছিলেন। অথচ বেগম জিয়া সে প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে প্রধানমন্ত্রীকে ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়ানোর জন্য ৪৮ ঘণ্টার আলটিমেটাম দেন। কারণ, তার প্রধান লক্ষ্য ছিল অবৈধভাবে পিছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতা দখল করা। মনে করেছিল শাপলা চত্বরে হেফাজত জামায়াত দিয়ে ব্যাংক অবরোধ করার। কিন্তু তা সফল হয়নি।

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি এইচ এম বদিউজ্জামান সোহাগের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তৃতা করেন আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক ক্যাপ্টেন (অব) এবি তাজুল ইসলাম, অধ্যাপক মমতাজ উদ্দিন পাটোয়ারী।


সংগৃহীত/এস

আরও সংবাদ