Widget by:Baiozid khan
শিরোনাম:

ঢাকা Wed September 26 2018 ,

রাস্তার হকার যখন ডাক্তার!

Published:2015-03-01 18:31:09    

কবিরাজ কি কবিতা লিখে!

"আসুন আমাদের গাড়ীর নিকট, দেখুন আমাদের প্রোডাক্টস গুলো। এর মূল্য একশো টাকা। কিন্তু কোম্পানির প্রচারের স্বার্থে আমারা একশো টাকা নিচ্ছি না। নিচ্ছি মাত্র চল্লিশ টাকা।"

"যে কোন ব্যাথা একবার মালিশেই সাড়া"

প্রসঙ্গঃ ঔষধের লাগামহীন ব্যবহার

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,
আপনার সু-দৃষ্টি কামনা করছি।

চিকিৎসা ব্যবস্থাকে এতোটা নিচু কোন দেশে করে না। হারবালের নাম করে হঠকারী আর কতদিন দেখবো!!!

আমাদের দেশে একটি মাত্র সরকারি ইউনানী ও আয়ূর্বেদিক মেডিকেল কলেজ আছে। সরকারি হাসপাতাল গুলোতেও ইউনানী/আয়ূর্বেদিক ডাক্তার আছেন। কিন্তু এসব হঠকারদের কারনে অপমানের শিকার হতে হচ্ছে এসব গ্রেজুয়েট ডাক্তারদের।

দোহায় লাগে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী,
এসব হঠকারদের হাত থেকে জনগনকে বাঁচান।

কোন রেজি: ডাক্তার ছাড়া কেউ প্রেসক্রিপশন করার অধিকার নেই। কিন্তু এসব হঠকারীদের বিরোদ্ধে আইন প্রয়োগ হচ্ছে না কেন?

আইন প্রয়োগ না করে ডাক্তারদের অপমানই করা হচ্ছে।

এন্টিবায়োটিক এখন ফার্মেসীর কর্মচারীও প্রেসক্রাইব করে!!!! এমনকি ক্রেতারাও দোকান থেকে কোন ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়াই ঔষধ চেয়ে নিচ্ছে।
এভাবে চলতে থাকলে চিকিৎসা ব্যবস্থার অবনতিই ঘটবে। এন্টিবায়োটিক একটা সময় আর কাজ করবে না।

সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের কাছে অনুরোধ, ঔষুধের ব্যবহার নিয়ন্ত্রন করুন। এভাবে লাগামহীন ছেড়ে দেয়া যায় না।

Written by: Habibullah Al Masum

আরও সংবাদ