Widget by:Baiozid khan
শিরোনাম:

ঢাকা Tue July 07 2020 ,

  • Techno Haat Free Domain Offer

সাতক্ষীরার বাঁধ মেরামত শেষেই ধস ! ৪ গ্রাম প্লাবিত

Published:2015-03-24 22:17:57    
সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: ভাঙ্গনের তিন দিন পর রিং বাঁধ দিয়ে মেরামত শেষ হওয়ার পরপরই প্রবল স্রোতে ফের ধসে পড়েছে সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার খোলপেটুয়া নদীর বাঁধ। এতে উপজেলার বুড়িগোয়ালিনী ও আটুলিয়া ইউনিয়নের আরো ৪ গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এর আগে বাঁধ ধসে ২ ইউনিয়নের ৮ গ্রাম প্লাবিত হয়।
 
মঙ্গলবার সকাল থেকে স্থানীয় প্রায় ৭০০ মানুষ স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে মাটির বস্তা ও বাঁশ-খুঁটি দিয়ে রিং বাঁধ মেরামতের কাজ শেষ করে। দুপুর ২টার দিকে প্রবল জোয়ারের চাপে মেরামতকৃত বাঁধের প্রায় ৭০ ফুট নদীগর্ভে ধসে পড়ে। মেরামত করা বাঁধ ধসে নদীতে বিলীন হওয়ায় আগের ৮ গ্রামসহ মোট ১২ গ্রামে পানি প্রবেশ করেছে। এতে  প্লাবিত এলাকাগুলোর চিংড়ি ঘের ভেসে গেছে। 
 
এদিকে, নদীর লোনা পানিতে বুড়িগোয়ালিনী ও আটুলিয়া ইউনিয়নের প্লাবিত হওয়া গ্রামগুলোর পুকুর ভেসে গেছে। এসব এলাকায় খাওয়ার পানির তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। স্থানীয় ক্ষতিগ্রস্ত বাবলু দাস বলেন, এমনিতেই আমাদের এলাকায় নলকূপের পানি খাওয়া যায় না। পুকুরের পানি খেতে হয়। কিন্তু পুকুরগুলো ভেসে যাওয়ায় খাবার পানির তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। 
 
সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্মকর্তা আব্দুল হামিদ ঘটনাস্থল থেকে বলেন, বর্তমানে বাজেট নেই। তারপরও রিং বাঁধ দিয়ে মেরামত করা হয়েছিল। কিন্তু আবার তা ভেঙে গেছে। এখন জরুরি ভিত্তিতে ৩৫ লাখ টাকা বরাদ্দ চাওয়া হয়েছে। গত রোববার বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়নের মাদিয়া নামক স্থানে খোলপেটুয়া নদীর প্রায় ২০০ ফুট বেড়িবাঁধ নদীতে ধসে যায়। এতে পানি প্রবেশ করে বুড়িগোয়ালিনী ও আটুলিয়া ইউনিয়নের মাদিয়া, দূর্গাবাটি, আড়পাঙ্গাশিয়া, বয়ারসিং ও হেঞ্চিসহ অন্তত ৮ গ্রাম প্লাবিত হয়।
 
 
বাংলাসংবাদ24/মো: মোস্তাক আহমেদ/কবির হোসেন।

 

আরও সংবাদ