Widget by:Baiozid khan
শিরোনাম:

ঢাকা Sat July 21 2018 ,

বিএনপির ঘরে ফেরা এবং জামায়াত নেতার ফাঁসী

Published:2015-04-07 12:12:49    

বাংলাসংবাদ: বাংলাদেশের জনগনের মাঝে রাজধানী থেকে বিদ্যুত বিহীন প্রত্যন্ত অঞ্চলের গ্রাম পর্যন্ত সবার আলোচনায় একটাই ইকুয়েশন তা হলো বিএনপির আন্দোলন ছেড়ে নির্বাচনে যাওয়ার নাম ঘরে ফেরা এবং হিন্দু বিচারপতির নেতৃত্বাধীন আদালত থেকে জামায়াতের নেতা মুহাম্মদ কামরুজ্জামানকে মৃত্যুদন্ড বহাল রেখে ফাঁসির তরিঘরি ব্যবস্থা করা। এর ভেতর থেকেই জনগণ বুঝে নিচ্ছে রাজনীতিতে কার সাথে কার আপোষ আর আঁতাত হয়েছে।

এদিকে জামায়তে ইসলামী ও অন্যান্য ইসলামী দলগুলো ২০ দলীয় জোট ছেড়ে যেতে পারে। কারণ ইসলামী রাজনীতি বাংলাদেশে নিষিদ্ধ করার আয়োজন চলছে। সেক্ষেত্রে অচিরেই ইসলামী রাজনৈতিক জোট তৈরী হলে এর বিপক্ষে কোনদিন ”বিএনপি- আ’লীগ” জোট দেখতে হলেও হতে পারে বলে অনেকেই বিশ্বাস করতে শুরু করেছেন।

এদিকে আজকের আপিল বিভাগের কার্যতালিকায় এসেছে তথাকথিত মানবতা বিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাউদ্দীন কাদের চৌধুরীর আবেদন। সোমবার সুপ্রিমকোর্টের ওয়েবসাইটে এ তথ্য পাওয়া গেছে। সাথে অবশ্য জামায়াতের আলী আহসান মুজাহিদের নামও রয়েছে। মঙ্গলবার আপিল বিভাগের কার্যতালিকায় এই দু’জনের মামলা রয়েছে। সালাউদ্দীন কাদের চৌধুরীকে কামারুজ্জামানের মত ফাসিতে ঝুলানো হলেও বিএনপি কোন প্রতিবাদ করবে বলে মনে হয় না। তবে এই নিরবতা বিএনপির অস্তিত্বকে একসময় হুমকির সম্মুখীন করবে; কারণ সামনের দিনগুলোতে কোন প্রজন্মই আর রিস্ক নিয়ে বিএনপির রাজনীতি করবে না।

এদিকে একটি নিউজ পোর্টালে সাক্ষাতকালে জামায়াতের ইউরোপ মুখপাত্র ব্যারিস্টার আবু বকর মোল্লা বলেছেন, জামায়াতে ইসলামী জালিম হাসিনা আর অবৈধ আওয়ামী লীগ সরকারের সাথে আপোষ করেনি বলে নিরপরাধ কামারুজ্জামানের ফাঁসির রায় দেয়া হয়েছে। বন্ধু দলগুলোর নিরবতা নিয়ে মোল্লা কে প্রশ্ন করলে তিনি জানান, মুনাফিকের জায়গা আল্লাহর জমিনে কোথাও নেই, সময় মুনাফিকদের নাজেহাল করবে।

বাংলাসংবাদ২৪/ইসরাফিল

আরও সংবাদ