Widget by:Baiozid khan
শিরোনাম:

ঢাকা Fri September 25 2020 ,

  • Techno Haat Free Domain Offer

এবার র‍্যাবের বিরুদ্ধে সরকারী দলের নেতার মামলা

Published:2015-08-23 14:39:16    

রাজধানীর হাজারীবাগে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ছাত্রলীগ নেতা নিহতের ঘটনায় র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‍্যাব) তিন সদস্যসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। আজ রোববার ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতে নিহত ছাত্রলীগ নেতা আরজুর ভাই মাসুদ রানা বাদী হয়ে এ মামলা করেন।

মামলায় র‍্যাব-২-এর কমান্ডার মাসুদ রানা, ডিএডি শাহিনুর রহমান, পরিদর্শক ওয়াহিদ ও ইনফরমার/তথ্য সরবরাহকারী রতনকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

বাদীর আইনজীবী আজিমুদ্দিন শিমুলের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা ইউএনবি জানিয়েছে, আজ রোববার সকালে মহানগর হাকিম শাহরিয়ার মাহমুদ আদনান বাদীর অভিযোগ শোনেন এবং তা নথিভুক্ত করেন।

১৮ আগস্ট হাজারীবাগ থানা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আরজু র‍্যাব-২ সদস্যদের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হন।

এর আগে ১৭ আগস্ট হাজারীবাগের গণকটুলি এলাকায় একটি মোবাইল ফোন চুরির অভিযোগে রাজা নামের এক কিশোরকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। নিহত আরজু ওই হত্যাকাণ্ডের প্রধান অভিযুক্ত। ওই দিনই মধ্যরাতে হাজারীবাগ এলাকা থেকে আরজুকে আটক করা হয় বলে জানায় র‍্যাবের একটি সূত্র।

আরজুকে সঙ্গে নিয়ে অন্য অভিযুক্তদের ধরতে অভিযান পরিচালনার সময় দুর্বৃত্তরা র‍্যাবের কাছ থেকে তাঁকে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। র‍্যাবের গণমাধ্যম শাখার পরিচালক মুফতি মাহমুদ খান বলেন, সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে আরজুকে নিয়ে অভিযান চালানোর সময় হাজারীবাগের মান্নান প্রিন্সিপালের ভবনের কাছে আরজুকে ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করা হয়। এ সময় দুর্বৃত্তরা র‍্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে র‍্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। উভয় পক্ষের গুলিবিনিময়ে আরজু গুলিবিদ্ধ হন। আহত আরজুকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে ভোর সাড়ে ৫টার দিকে মৃত্যু হয় তাঁর।

গুলিবিনিময়ের পর আরজুর সহযোগী দুর্বৃত্তরা পালিয়ে গেলে ঘটনাস্থল থেকে দুটি বিদেশি পিস্তল, তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয় বলেও জানান মুফতি মাহমুদ খান।
 

আরও সংবাদ