Widget by:Baiozid khan
শিরোনাম:

ঢাকা Sat July 21 2018 ,

লক্ষ্মীপুর আ.লীগ নেতার নির্যাতনে অতিষ্ট সাধারণ জনগন

Published:2016-02-28 01:06:11    
বাংলাসংবাদ২৪: ভূমি জালিয়াতি, মসজিদের অর্থ আত্মসাৎ,ওয়াকফকৃত মসজিদের সম্পত্তি বিক্রয়ের গোপন পায়তারা, সংখ্যালঘুদের উপর নির্মম চাঁদাবাজির অভিযোগ  উঠেছে লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুর পৌরসভার আওয়ামিলীগের আহবায়ক কাজী জামশেদ কবীর বাকী বিল্লাহর বিরুদ্ধে। 
 
সূত্রমতে জানা যায়, বাকী বিল্লাহ বিশ্ব জাকের মন্জিল আটরশির প্রভাবশালী খলিফা এবং কিছু কিছু জায়গায় নিজেকে পীর হিসেবেও পরিচয় প্রদান করেন। তিনি প্রতি বছর আটরশির ওরশ উপলক্ষ্যে রায়পুর পৌরসভার নিরীহ লোকজন, বিরোধী দলের নেতা-কর্মী এমনকি সংখ্যালঘুদের নিকট হতেও ব্যাপক চাঁদাবাজি করেন।
 
এলাকায় সরেজমিনে ঘুরে আমাদের প্রতিবেদক তার বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধী এবং স্বাধীনতা বিরোধী চক্রকে মদদ দান সহ ব্যাপক দূর্ণীতি ও অর্থ আত্মসাতের খবর পেয়েছেন। এলাকায় তার ব্যাপারে ছোট বেলা থেকে চুরি সহ বিভিন্ন ধরনের অপরাধের সাথে জড়িত থাকার খবর পাওয়া যায়। স্থানীয় আওয়ামিলীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের একাধিক নেতা-কর্মীর সঙ্গে তার সম্পর্ক খুবই খারাপ। তার নিজস্ব বাহিনীর ভয়ে নিজ দলের লোকজনও নিশ্চুপ থাকে, এছাড়াও যে কোন ঘটনাতেই তার প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে অবৈধ পিস্তল নিয়ে হুমকি দেয়ার খবর পাওয়া যায়।
 
বাকী বিল্লাহর ২য় বিয়ে
 
দ্বিতীয় ঘরের বড় মেয়ে জুঁই তার পিতার অবৈধ কার্যক্রম বিরোধীতা করতে গিয়ে না পেরে পালিয়ে গিয়ে বিয়ে করে,সেখানেও তার শুশুরবাড়ীর লোকজনের উপর বাকী বিল্লার দফায় দফায় নির্যাতনে অতিষ্ট হয়ে  এক পর্যায়ে গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যা করে বলে জানা যায়।
 
অভিযোগ রয়েছে যে পৌরসভা এবং থানার অলিখিত প্রশাসক এই বাকী বিল্লাহ। পৌরসভার ভিতর মসজিদ, মাদ্রাসা, মন্দির, ব্যাবসা-বাণিজ্য, ঘর-বাড়ী কোন কিছু নির্মাণ বা শুরু করতে গেলে তাকে চাঁদা না দিয়ে হয়না। তার তান্ডবে পৌরসভার সংখ্যালঘু এবং নিরীহ জনসাধারন ও অতিষ্ট বলে জানা যায়।
 
ব্যাক্তিগত ভাবে কোন ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানের মালিক না হলেও  রায়পুর পৌরসভায় চার তলা আলীশান বাড়ি, ঢাকা-চাঁদপুর ফরিদপুরে একাধিক ফ্ল্যাট এবং তিনটি ব্যাক্তিগত গাড়ীর মালিক তিনি।
 
রায়পুরের অন্তর্গত পুরাতন ঐতিহ্যবাহী স্থাপনা রায়পুর বড় মসজিদের ওয়াকফকৃত সম্পত্তি বিক্রয়ের গভীর ষঢ়যন্ত্র করেছিলেন তিনি।বিষয়টি পরবর্তীতে ওয়াকফ প্রশাষক বাংলাদেশের হস্তক্ষেপে বন্ধ হয়।ওয়াকফ প্রশাসকের তদন্ত কমিটির প্রতিবেদনে বাকী বিল্লাহ মসজিদের টাকা নিয়মিত আত্মসাৎ করছেন মর্মেও প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়।
 
তার নির্যাতনে অতিষ্ট রায়পুরের মানুষ,রায়পুরের শান্তিপ্রিয় জনগন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
 
বাংলাসংবাদ২৪/ফরাজী/০১

আরও সংবাদ