Widget by:Baiozid khan

ঢাকা Tue November 20 2018 ,

  • Advertisement

ইনিংস ও ২৫৪ রানে হারলো বাংলাদেশ

Published:2017-10-08 23:25:14    

স্পোর্টস ডেস্ক  দ্বিতীয় ইনিংসে ১৭২ রানে গুটিয়ে গেলো বাংলাদেশ। আর এতে দুই দিনেরও বেশি সময় বাকি থাকতেই দ্বিতীয় টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকার জয় হলো এক ইনিংস ও ২৫৪ রানের ব্যবধানে। ব্লুমফন্টেইনের এ টেস্টে স্বাগতিকরা প্রথম ইনিংস ঘোষণা করেছিল ৪ উইকেটে ৫৭৩ রান করে। জবাবে শনিবারই বাংলাদেশ প্রথম ইনিংসে অলআউট হয় ১৪৫ রানে। এর আগে পচেফস্ট্রুমে অনুষ্ঠিত প্রথম টেস্টে দক্ষিণ আফ্রিকা জিতেছিল ৩৩৩ রানের ব্যবধানে। প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসেও কাগিসো রাবাদা ৫ উইকেট পান। শুভাশিস রায় ১২ রানে অপরাজিত থাকেন। মোস্তাফিজ এক ছক্কায় ৭ রান করে শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হন। দক্ষিণ আফ্রিকরা এটি সবচেয়ে বড় ব্যবধানে জয়।
ভাঙলো লিটন-মাহমুদুল্লার প্রতিরোধ
পঞ্চম উইকেটে ৪৩ রানের জুটি গড়ে লড়াই দেখাচ্ছিলেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ও লিটন কুমার দাস। তবে অল্প বিরিতে সাজঘরে ফিরলেন তারা উভয়েই। দলীয় ১৩৫ রানে উইকেট কোয়ান লিটন। আর ১৩৯ রানে সাজঘরে ফেরেন মাহমুদুল্লাহ। উইকেট দেয়ার আগে মাহমুদুল্লাহ করেন ৪৩ রান। আর প্রথম ইনিংসে ৭০ রানের কৃতিত্ব দেখানো লিটনের ব্যাট থেকে এবার এলো ১৮। ব্লুমফন্টেইনে রোববার দলীয় ৬৩ রানে তৃতীয় উইকেট খোয়ায় বাংলাদেশ। তবে চতুর্থ উইকেট জুটিতে ব্যাট হাতে প্রতিশ্রুতি দেখাচ্ছিলেন  অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। তবে লাঞ্চের আগ মুহূর্তে খেই হারান মুশফিক।  প্রোটিয়া পেসার ওয়েইন পারনেলের ডেলিভারিতে এলবিডাব্লিউর ফাঁদে জড়ান তিনি। সঙ্গে সঙ্গে মধ্যাহ্ন বিরতির সিদ্ধান্ত নেন আম্পায়াররা। এতে ৯২/৪ সংগ্রহ নিয়ে লাঞ্চে যায় বাংলদেশ।
প্রোটিয়া পেসার ডুয়ান অলিভিয়ারের বলে ৩২ রানে সাজঘরে ফেরেন ইমরুল কায়েস। রোববার দিনের শুরুতে রাবাদার বলে মাত্র ৩ রানে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফিরেছিলেন সৌম্য সরকার। আর মুমিনুল হককে মহারাজের তালুবন্দি করে ফেরান গতি দানব রাবাদা। দ্বিতীয় টেস্টের ৩য় দিনে ফলো-অনে ব্যাট করছে বাংলাদেশ। টসে জিতে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় সফরকারী বাংলাদেশ। ৫৭৩ রান করে ইনিংস ডিক্লেয়ার করে স্বাগতিকরা। মাকৃরাম ১৪৩, ডু প্লেসি অপরাজিত ১৩৫, হাশিম আমলা ১৩৫ ও  ডিন এলগারের ১১৩ রানের সুবাদে বড় সংগ্রহ পায় তারা। শুভাশীষ রায় নেন ৩ টি উইকেট ও রুবেল হোসেন পান ১ টি। জবাবে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের ধারাবাহিক ব্যর্থতায় মাত্র ১৪৭ রান করে বাংলাদেশ। লিটন দাস একাই করেন ৭০ ও ইমরুল কায়েসের ব্যাট থেকে আসে ২৬ রান। রাবাদা তুলে নেন ৫ উইকেট। প্রথম টেস্ট বাংলাদেশ ৩৩৩ রানের বড় ব্যবধানে হেরেছিল।

আরও সংবাদ