Widget by:Baiozid khan

সিপিএ’র ৬৩তম সম্মেলন আগামী পহেলা নভেম্বর

Published:2017-10-26 19:58:50    
বিশেষ প্রতিবেদক: কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি এ্যসোসিয়েশন (সিপিএ)’র ৬৩তম সম্মেলন ২০১৭ আগামী ১ থেকে ৮ নভেম্বর ঢাকায় অনুষ্ঠিত হবে। বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ ও কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি এ্যসোসিয়েশন (সিপিএ) যৌথভাবে এ সম্মেলনের আয়োজন করছে। 
সম্মেলন উপলক্ষে আজ বৃহস্পতিবার সংসদ সদস্যদের সমন্বয়ে গঠিত মিডিয়া তত্ত্বাবধান কমিটি সিনিয়র সাংবাদিকদের সাথে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের পার্লামেন্ট মেম্বারস ক্লাবে এক মতবিনিময় করে।
এবারের সম্মেলনের প্রতিপাদ্য হচ্ছে, ‘কন্টিনিউয়িং টু এ্যানহান্স দ্যা হাই স্ট্যান্ডার্স অব পারফরমেন্স অব পার্লামেন্টেরিয়ানস।’ 
মতবিনিময় সভায় মিডিয়া তত্ত্বাবধান কমিটির সদস্য আবুল কালাম আজাদ এমপি, কাজী নাবিল আহমেদ এমপি, ফজিলাতুন নেসা বাপ্পি এমপি ও তানভীর ইমাম এমপি অংশগ্রহণ করেন। 
কমিটির সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ এমপি বলেন, কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি এসোসিয়েশন (সিপিএ) কমনওয়েলথভুক্ত ৫২টি রাষ্ট্রের জাতীয় পার্লামেন্ট ও প্রাদেশিক পার্লামেন্টসহ মোট ১৮০টি ব্রাঞ্চ সমন্বিত একটি ঐতিহ্যবাহী এসোসিয়েশন। 
যুক্তরাজ্যের রানী দ্বিতীয়এলিজাবেথ সিপিএ’র প্যাট্রন। ২০১৭ সালের জন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভাইস প্যাট্রন হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। 
তিনি বলেন, ৬৩তম সিপিসি উদ্বোধন অনুষ্ঠান আগামী ৫ নভেম্বর জাতীয় সংসদের দক্ষিণ প্লাজায় অনুষ্ঠিত হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন।
সিপিএ’র বর্তমান চেয়ারপার্সন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী । ২০১৪ সালে তিনি তিন বছরের জন্য সিপিএ নির্বাহী কমিটির প্রথম মহিলা চেয়ারপার্সন নির্বাচিত হন।
কাজী নাবিল আহমেদ বলেন, এ পর্যন্ত ৪৪টি দেশসহ প্রায় ১৪৪টি সিপিএ ব্রাঞ্চ সম্মেলনে অংশগ্রহণ করবে। জাতীয় ও প্রাদেশিক সংসদের ৫৬ জন স্পিকার এবং ২৩ জন ডেপুটি স্পিকার ও সংসদ সদস্যসহ প্রায় ৫৫০ জনের অধিক প্রতিনিধি সম্মেলনে অংশগ্রহণ করবেন বলে আশা করা যাচ্ছে।
সিপিএ’র মূল সম্মেলন বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন (বিআইসিসি) কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে। অন্যান্য সভা হোটেল রেডিসন ব্লু’তে অনুষ্ঠিত হবে।
তিনি বলেন, এ সম্মেলনে নির্বাহী কমিটির সভা, কমনওয়েলথ ওমেন পার্লামেন্টারি স্টিয়ারিং কমিটির সভা, স্মল ব্রাঞ্চেজ কনফারেন্স, বিভিন্ন সাব-কমিটির সভা, রিজিওনাল গ্রুপমিটিং, জেনারেল এসেম্বলি ও ৮টি কর্মশালা অনুষ্ঠিত হবে।
সিপিএ গণতন্ত্রকে সুসংহত করা, আইনের শাসন ও মানবাধিকার সমুন্নত রাখা, জনগণের ক্ষমতায়ন ও কল্যাণ নিশ্চিতকরণের লক্ষ্য নিয়ে কাজ করে। ডেমোক্রেসি, ডাইভারসিটি এন্ড ডেভেলপমেন্ট সিপিএ’র প্রতিপাদ্য। 
মতবিনিময় সভায় বিভিন্ন মিডিয়ার সিনিয়র সাংবাদিকবৃন্দ ও সংসদ সচিবালয়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

আরও সংবাদ