Widget by:Baiozid khan
শিরোনাম:

ঢাকা Thu September 20 2018 ,

পিলখানা ট্র্যাজেডিকে “শহীদ সেনা দিবস” পালন করবে বিএনপি

Published:2018-02-25 14:54:38    

বিএনপি আগামীতে ক্ষমতায় গেলে ২৫ ফেব্রুয়ারি রাষ্ট্রীয়ভাবে ‘শহীদ সেনা দিবস’ হিসেবে পালনের ব্যবস্থা নেবে দলটি।
আজ রোববার সকালে রাজধানীর বনানীর কবরস্থানে পিলখানায় বিদ্রোহে নিহতদের স্মরণে নির্মিত স্মৃতি স্তম্ভে দলের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধার্ঘ নিবেদনের পর বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ও সাবেক সেনা প্রধান মাহবুবুর রহমান সাংবাদিকদের কাছে এই কথা জানান।
তিনি বলেন, এই দিনটি জাতির ট্র্যাজেডি । বিএনপি আগামীতে ক্ষমতায় গেলে ২৫ ফেব্রুয়ারি দিনটিকে রাষ্ট্রীয়ভাবে শহীদ সেনা দিবস হিসেবে পালনে ব্যবস্থা গ্রহন করব।
সকাল সাড়ে ১০টায় বনানী কবরাস্থানে নির্মিত স্মৃতি স্তম্ভের বেদীতে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মাহবুবুর রহমানের নেতৃত্বে একটি প্রতিনিধিদল বনানীতে সেনা কবরাস্থানে গিয়ে নিহতদের কবরে পুস্পমাল্য অর্পন করেন।
প্রতিনিধিদলটি দলের কারাবন্দি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের পক্ষে পুস্পস্তবক অর্পন করেন। কিছুক্ষন নিরবে দাঁড়িয়ে নিহত সেনা কর্মকর্তাদের স্মৃতির প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানান তারা।
বিএনপির প্রতিনিধি দলে ছিলেন দলের ভাইস চেয়ারম্যান অবসরপ্রাপ্ত মেজর হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, কল্যাণ পার্টির চেয়ারম্যান অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিম, অবসরপ্রাপ্ত বিমান বাহিনী প্রধান আলতাফ হোসেন চৌধুরী, অবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল ফজলে এলাহী আকবর, অবসরপ্রাপ্ত কর্ণেল ইসহাক, অবসরপ্রাপ্ত কর্ণেল মনিষ দেওয়ান, অবসরপ্রাপ্ত মেজর মিজানুর রহমান, অবসরপ্রাপ্ত মেজর সারোয়ার হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফাত ও চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান।
পরে সাংবাদিকদের কাছে মাহবুবুর রহমান বলেন, পিলখানায় তৎকালীন বিডিআর সদর দপ্তরে হত্যাকান্ডের ঘটনা ছিলো দেশী-বিদেশী ষড়যন্ত্রের অংশ। ওই হত্যাযজ্ঞের পূর্ণাঙ্গ বিচার আজো হয়নি। বিস্ফোরক আইনে মামলার বিচারও ঝুলে আছে।

আরও সংবাদ