Widget by:Baiozid khan
শিরোনাম:

ঢাকা Mon July 16 2018 ,

নির্বাচনকালীন সরকার হবে আকারে ছোট

Published:2018-03-28 15:04:36    

নিজস্ব প্রতিবেদক:  সংসদে যারা প্রতিনিধিত্ব করছে সেই দলগুলো নিয়েই আকারে ছোট নির্বাচনকালীন সরকার গঠিত হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেন, ‘নির্বাচনকালীন সরকারের আকার আগেরবারের মতোই ছোট হবে। সংসদে যারা প্রতিনিধিত্ব করছে সেই দলগুলোই নিয়ে গঠিত নির্বাচনকালীন সরকার। আর এটা পুরোপুরি প্রধানমন্ত্রীর এখতিয়ার।’

ওবায়দুল কাদের আজ বুধবার সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সভা কক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন।

সংবিধান অনুযায়ী দেশে যথাসময়ে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘নির্বাচনের সময় প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগের প্রশ্নই আসে না। প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ করলে দেশ চালাবেন কে? খালেদা জিয়া কি কারাগার থেকে বেরিয়ে এসে দেশ চালাবেন?’

ওবায়দুল কাদের বলেন, তাদের লজ্জা পাওয়া উচিত। তারা যখন ক্ষমতায় ছিল ২১ ফেব্রুয়ারিতে আমাদের অফিসের বারান্দায়ও সভা করতে দেয়নি। যখন তারা ক্ষমতায় ছিল তখন বিরোধীদলের কোনো সুবিধা দেয়নি। ২৭ মার্চ জনদুর্ভোগের কথা ভেবে আমরা রুলিং পার্টি পর্যন্ত র‌্যালি করলাম না। তারা করল। তাই তাদের অভিযোগ অবান্তর।

তিনি বলেন, তারা (বিএনপি) নৈতিকতার দিকটাকে বড় করে দেখছে না। তাদের সংবিধানে সাত ধারা ছিল, সেটা হঠাৎ করে উঠিয়ে নিলেন। আর বেগম জিয়ার রায় ঘোষণার ১০ দিন আগে সেটা তারা (বিএনপি) বাদ দিয়ে দিলেন।

কাদের বলেন, বিএনপিতে এখন আর কোনো প্রকার দুর্নীতিবাজ নেতার জনপ্রতিনিধি হতে বাধা নেই। তার মানে বিএনপি এখন মেনে নিয়েছে তারা আত্মস্বীকৃতি দুর্নীতিবাজ দল।

বিএনপির সমাবেশের অনুমতির বিষয়ে তিনি বলেন, বিএনপিকে সমাবেশ করার অনুমতি দিলে বলে সরকার বাধ্য হয়ে অনুমতি দিয়েছে। আবার অনুমতি না দিলে বলে দেশে গণতন্ত্র নাই। এখন আপনারাই বলেন, বিএনপিকে নিয়ে আমরা কী করি?

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপিকে সমাবেশের অনুমতি দেয়া হবে কি না, সেটি ডিএমপি কমিশনারের ব্যাপার। তারা বিএনপির সমাবেশকে নিরাপদ মনে করলে অনুমতি দেবে, নিরাপদ মনে না করলে অনুমতি দেবে না।
সেতুমন্ত্রী বলেন, মানুষ এখন নির্বাচনের মুডে আছে, আন্দোলনের মুডে নয়। মুখের কথা দিয়ে এখন আর ভোট পাওয়া যায় না। ভোট পেতে হলে উন্নয়ন দেখাতে হয়, কাজ দেখাতে হয়। বিএনপির এমন কোনো কাজ নাই যা নিয়ে মানুষের কাছে ভোট চাইতে যাবে।

আরও সংবাদ