Widget by:Baiozid khan
শিরোনাম:

ঢাকা Mon February 24 2020 ,

  • Techno Haat Free Domain Offer

ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে : কৃষিমন্ত্রী

Published:2019-12-29 10:34:44    
কৃষিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক এমপি বলেছেন, আওয়ামী লীগ সব সময় গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে। ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ হবে।
শনিবার দুপুরে টাঙ্গাইলের কুমুদিনী সরকারি মহিলা কলেজের ৭৫ বছর পূর্তী উপলক্ষে আয়োজিত দুইদিনব্যাপী পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন।
আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ড. রাজ্জাক বলেন, ‘বিএনপি নির্বাচনে আসবে এটা ভালো কথা। বিএনপি এই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করুক তা সবাই চায়। কিন্তু নির্বাচন যেন সুষ্ঠু, সুন্দর এবং নিরপেক্ষ হয় সেক্ষেত্রে বিএনপিরও দায়িত্ব রয়েছে। আগামী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন সুষ্ঠু এবং নিরপেক্ষ হবে এই প্রতিশ্রুতি আমি আপনাদের দিচ্ছি সরকারের পক্ষ থেকে।’
কৃষিমন্ত্রী আরো বলেন, ‘বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া দুর্নীতির মামলায় কারাগারে রয়েছেন। দুর্নীতির কারণেই আদালতে দোষী প্রমাণিত হয়েই কারাভোগ করছেন।’
তিনি বলেন, বাংলাদেশ উন্নয়নের মহাসড়কে। সেই মহাসড়ককে বেগবান ও ত্বরান্বিত করতে বর্তমান সরকার কাজ করে যাচ্ছে।
বাংলাদেশের প্রতিটি ক্ষেত্রেই ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে জানিয়ে কৃষিমন্ত্রী বলেন, টাঙ্গাইলের একটি অর্থনৈতিক জোন তৈরি হবে। সেই অর্থনৈতিক জোন দেশের অন্যতম জোন হিসেবে পরিচিত হবে।
টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক শহীদুল ইসলামের সভাপতিত্বে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ছানোয়ার হোসেন এমপি, তানভীর হাসান ছোট মনি এমপি, সংরক্ষিত আসনের এমপি মমতা হেনা লাভলী, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান খান ফারুক, পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়, টাঙ্গাইল পৌরসভার মেয়র জামিলুর রহমান মিরন, কুমুদিনী সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ আবদুল মান্নান, কলেজের প্লাটিনাম জয়ন্তী উদযাপন কমিটির আহবায়ক নিগার আফতাব প্রমুখ বক্তব্য দেন।
এ সময় বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ, কুমুদিনী কলেজের শিক্ষক, সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা সভা শেষে ৭৫ পাউন্ড কেক কাটেন অতিথিবৃন্দ। এ সময় অনুষ্ঠানস্থল সাবেক এবং বর্তমান শিক্ষার্থীদের মিলনমেলায় পরিণত হয়। পরে বিকেলে এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এর আগে সকালে কলেজের প্রাক্তন ও বর্তমান ছাত্রীদের অংশগ্রহণে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়।
উল্লেখ্য, দানবীর রণদা প্রসাদ সাহা নারীশিক্ষা প্রসারের লক্ষ্যে ১৯৪৩ সালে টাঙ্গাইল শহরে মায়ের নামে কুমুদিনী কলেজ প্রতিষ্ঠা করেন। নারীদের জন্য ১৪ দশমিক ১৩ একর জমিতে প্রতিষ্ঠিত বৃহত্তর ময়মনসিংহের এই কলেজের যাত্রা শুরু হয়েছিল উচ্চ মাধ্যমিক শ্রেণী দিয়ে। পরে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শ্রেণি চালু হয়। ১৯৭৯ সালে কলেজটি সরকারি করা হয়। বর্তমানে কলেজে ১৬টি বিষয়ে স্নাতক (সম্মান) এবং ৮টি বিষয়ে স্নাতকোত্তর কোর্স চালু রয়েছে।
 

আরও সংবাদ