Widget by:Baiozid khan
শিরোনাম:

ঢাকা Sun September 23 2018 ,

সিগারেটসহ তামাকজাত দ্রব্যের দাম বাড়বে

Published:2013-06-06 21:34:01    

ঢাকা: প্রস্তাবিত বাজেটে সব ধরনের সিগারেটের মূল্যস্তর ও সম্পূরক শুল্কহার বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। একই সঙ্গে প্রস্তাব করা হয়েছে তামাকজাত দ্রব্য জর্দা ও গুলের ওপর সম্পূরক শুল্ক বাড়ানোর।
বৃহস্পতিবার অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত জাতীয় সংসদে বাজেট বক্তৃতায় এসব প্রস্তাব করেন।
 
তামাকজাত পণ্যের স্বাস্থ্যঝুঁকিতে এর ব্যবহার কমিয়ে আনার ও রাজস্ব আয় বৃদ্ধির জন্য সিগারেটের বিদ্যমান মূল্য স্ল্যাব প্রিমিয়াম থেকে নিম্নস্তর পর্যন্ত যথাক্রমে ২১.২১, ১৯.৩২, ১৩.১৩ ও ১৫.৭০ শতাংশ ভিত্তিমূল্য বৃদ্ধির প্রস্তাব করা হয়েছে।
 
অর্থমন্ত্রী বাজেট প্রস্তাবে বলেন, দেশীয় শিল্পের শ্রমিক স্বার্থ বিবেচনায় নিয়ে বিড়ি খাতের ট্যারিফ মূল্য এবং শুল্ক হারে বিগত ৪ অর্থবছরে কোন সংস্কার বা পরিবর্তন করা  হয়নি। বর্তমান শুল্ক কাঠামো অনুযায়ী ফিল্টারবিহীন ২৫ শলাকার করসহ মূল্য ৪.৩৬ টাকা এবং ফিল্টারযুক্ত ২০ শলাকার প্রতি প্যাকেট বিড়ির করসহ মোট মূল্য দাড়ায় ৪.৯৩ টাকা।
 
সহজলভ্যতার কারণে ব্যাপক সংখ্যক ভোক্তা এর ব্যবহারের সুযোগ নেয় এবং স্বাস্থ্যঝুঁকির মধ্যে পড়ে বলে উল্লেখ করে অর্থমন্ত্রী বলেন, সব দিক বিবেচনায় নিয়ে বিড়ির বিদ্যমান ট্যারিফ মূল্য এবং শুল্ক হার কিছুটা যৌক্তিকীকরণের মাধ্যমে করসহ ফিল্টারবিহীন ২৫ শলাকার প্যাকেটের মূল্য ৫.৮০ টাকা এবং ফিল্টারযুক্ত ২০ শলাকার প্রতি প্যাকেট বিড়ির মূল্য ৬.৩০ টাকা নির্ধারণের প্রস্তাব করা হয়েছে।
 
পাবলিকলি ট্রেডেড সিগারেট প্রস্তুতকারী কোম্পানির আয় কর হার প্রস্তাব করা হয়েছে ৪০ শতাংশ। এর আগে আয় কর হার ছিল ৩৫ শতাংশ।
 
নন-পাবলিকলি ট্রেডেড সিগারেট প্রস্তুকারী কোম্পানির আয় কর হার প্রস্তাব করা হয়েছে ৪৫ শতাংশ। এর আগে আয় কর হার ছিল ৪২.৫০ শতাংশ।


বাংলাসংবাদ২৪/এনডি/বিএইচ
 

আরও সংবাদ