Widget by:Baiozid khan
  • Advertisement

পরকীয়ায় ঘর ভাঙলো দু’প্রবাসীর!

Published:2013-07-18 10:55:55    

বরিশাল: পুলিশ কনস্টেবলের পরকীয়ার কারণে ঘর ভেঙে গেল বরিশালের উজিরপুর উপজেলার যুগীহাটি গ্রামের দু’প্রবাসীর সংসার। সংসার ভাঙা দু’প্রবাসী তাদের উপার্জনের সকল অর্থ ও স্বর্ণালঙ্কার হারিয়ে বিচারের আশায় দীর্ঘ দু’বছর ধরে বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত আবেদন করে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। তারা সঠিক বিচার তো পাননি বরং উল্টো মামলার আসামি হয়ে আদালতের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন।

যুগীহাটি গ্রামের দুবাই প্রবাসী শাহ আলম হাওলাদার কালু ও সৌদি প্রবাসী জাহাঙ্গীর হোসেন খান লিটন অভিযোগ করেন, কর্মের সন্ধানে তারা দেশের বাইরে ছিলেন। এ সুবাদে ২০১১ সালে একই গ্রামের বাসিন্দা ও তৎকালীন গৌরনদীর বাটাজোর ক্যাম্পে কর্মরত পুলিশ কনস্টেবল শাহাদাত হোসেন শাহিন কৌশলে লিটনের স্ত্রী ও কালুর স্ত্রীর সাথে মোবাইল ফোনে পরকীয়ার সম্পর্ক গড়ে তোলে। একপর্যায়ে উভয় প্রবাসীর স্ত্রীদের সঙ্গে কনস্টেবল শাহিন দৈহিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। এতে লিটনের স্ত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে।

এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে কনস্টেবল শাহিন দু’প্রবাসীর স্ত্রীদের কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়ে কালুর স্ত্রীকে বিয়ে করে। এসব ঘটনা নিয়ে লিটনের সংসারে দাম্পত্য কলহ দেখা দিলে তার স্ত্রী বাবার বাড়িতে চলে যান। পরবর্তীকালে প্রবাসী লিটনের বিরুদ্ধে তিনি নারী নির্যাতন ও যৌতুক আইনে বরিশাল আদালতে মামলা দায়ের করেন। প্রবাসী লিটন ও কালু নিরুপায় হয়ে আরআরএফ’র জেলা কমান্ড্যান্টের কাছে কনস্টেবল শাহিনের বিরুদ্ধে লিখিতভাবে অভিযোগ করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত সাপেক্ষে ঘটনার সত্যতা পেয়ে প্রাথমিকভাবে কনস্টেবল শাহিনকে চাকরি থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়।

প্রবাসীদের অভিযোগে আরও জানা গেছে, এ ঘটনার কয়েক মাস যেতে না যেতেই আবার শাহিন তার চাকরিতে যোগদান করে। এরপর থেকে তাদের (দু’প্রবাসীকে) শাহিন বিভিন্ন ধরনের হয়রানি শুরু করে। সংসার ভাঙা ওই দু’প্রবাসী কনস্টেবল শাহিনের হয়রানি থেকে রেহাই পেতে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।


বাংলাসংবাদ২৪/বিকে/বিএইচ

আরও সংবাদ