Widget by:Baiozid khan

ছাত্রলীগ নেতার লিঙ্গ কেটে নিল দু'বোন!

Published:2013-07-21 15:15:28    

বরিশাল: বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. মিলনের লিঙ্গ কর্তনের ঘটনায় পুরো উপজেলা জুড়ে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়েছে।গত শুক্রবার লিঙ্গ কর্তনের
বিষয়টি এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে দিনভর পুরো উপজেলাজুড়ে ব্যাপক আলোড়নের সৃষ্টি হয়েছে। লোকলজ্জায় মিলনকে গোপনে ঢাকায় নিয়ে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

স্থানীয় একাধিক সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন থেকে মিলনের সাথে স্থানীয় এক প্রাইমারি শিক্ষিকার অবৈধ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। মিলনের বাসার প্রায় একশ গজ দূরত্বে ওই শিক্ষিকা তার ছোট বোনকে নিয়ে বসবাস করে আসছিল। কাছাকাছি বসবাসের সুবাধে প্রায় রাতেই তাদের দুজনের অবৈধ মেলামেশা চলতো। এরইমধ্যে ওই শিক্ষিকার ছোট বোনের ওপর ক্যু দৃষ্টি পরে মিলনের। ঘটনার দিন বৃহস্পতিবার গভীর রাতে মিলন ওই শিক্ষিকার সাথে মেলামেশা করার পর বাসা থেকে বের হওয়ার সময় কৌশলে শিক্ষিকার ছোট বোনের রুমে প্রবেশ করে তাকে ঝাঁপটে ধরে।

এসময় দুবোন মিলে মিলনের লিঙ্গ কর্তন করে দেয়। ঘটনাটি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে মিলনের চাচাতো ভাই পারভেজ মৃধা জানান, অজ্ঞাতনামা সন্ত্রাসীরা মিলনের ওপর হামলা চালিয়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে। গভীর রাতেই মিলনের সহযোগীরা প্রথমে তাকে বরিশাল শেবাচিম ও লোকলজ্জায় তাৎক্ষণিক ঢাকায় নিয়ে গোপনে চিকিৎসা দিচ্ছেন।

বাবুগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শাহ আলম জানান, মিলন ভোর রাতে বাথরুম থেকে পা পিছলে পড়ে গিয়ে আহত হয়েছেন বলে তাকে মোবাইল ফোনে জানিয়েছেন।
এলাকায় নানা গুঞ্জনের বিষয়ে মিলনের কাছে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি ফোন করে বন্ধ করে দেন বলেও ওসি উল্লেখ করেন।

 

বাংলাসংবাদ২৪/সাজ/বিএইচ


 

আরও সংবাদ